করোনা ভাইরাস নির্মূলে সচল হয়েছে রোবট

২০ মার্চ ২০২০


করোনা ভাইরাস নির্মূলে সচল হয়েছে রোবট

‘আপনি ঘর থেকে বেরিয়ে যান, দরোজা বন্ধ রাখুন। এবং কিছুক্ষণের মধ্যে জীবাণুনাশকের কাজ শুরু হবে।’ ইংরেজিতে এই কথাগুলো বলছে একটা রোবট। ‘এটা চীনা ভাষাতেও কথা বলতে পারে।’ জানালেন ইউভিডি রোবটস কোম্পানির ভাইস প্রেসিডেন্ট সাইমন এলিস। খবর বিবিসি’র। 

জানালার কাঁচের মধ্য দিয়ে দেখা গেল ঘরের মধ্যে রোবটটি ঘোরাফেরা করতে শুরু করেছে এবং ক্যামেরার ফ্ল্যাশ-বাতির মতো অতিবেগুনি রশ্মি জ্বেলে ঘরের সব ধরনের ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস ধ্বংস করছে। ইউভি রোবটস কোম্পানির প্রধান নির্বাহী পের ইউল নিয়েলসেন বলেন, ‘আমাদের ব্যবসা এমনিতেই বেশ চড়া ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারির পর এটা একেবারেই আকাশচুম্বী হয়েছে।’ এরই মধ্যে তারা চীনে, বিশেষভাবে উহানে, প্রচুর সংখ্যায় এই রোবট পাঠিয়েছেন। এশিয়া এবং ইউরোপেও তাদের বিক্রি বহুগুণ বেড়ে গিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘সবচেয়ে বেশি অর্ডার এসেছে ইতালি থেকে, তাদের অবস্থা সত্যি শোচনীয়। আমরাও তাদেরকে যথাসম্ভব সাহায্য করতে চেষ্টা করছি।’ স্বাভাবিকভাবেই ইউভিডি রোবটসের উৎপাদন বেড়ে তিনগুণ হয়েছে।

ডেনমার্কের তৃতীয় বৃহত্তম শহর ওডেনসে এই কোম্পানির কারখানায় প্রতিদিন একটা করে এধরনের জীবাণুনাশক রোবট নির্মাণ করা হচ্ছে।

যেভাবে কাজ করে এই রোবট:

এই জীবাণুনাশক রোবটের রয়েছে আটটা বাল্ব। যেগুলো থেকে তীব্র অতিবেগুনি অর্থাৎ আলট্রা-ভায়োলেট বা ইউভি-সি আলোকরশ্মি বের হয়। এই আলোকরশ্মি ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস এবং অন্যান্য ক্ষতিকারক জীবাণুর ডিএনএ এবং আরএনএ ধ্বংস করে যাতে এগুলো সংখ্যায় আর বাড়তে না পারে। এই অতিবেগুনি রশ্মি মানবদেহের জন্যও খুবই ক্ষতিকারক। রোবটি যখন ঘরের ভিতরে কাজ করবে তখন কোন মানুষ উপস্থিত থাকার নিয়ম নেই। পুরো ঘরের জীবাণু ধ্বংস করতে রোবটটির ১০ থেকে ২০ মিনিট সময় লাগে। 

এই রোবট তৈরিতে সাহায্য করেছে ইউনিভার্সিটি অফ সাদার্ন ডেনমার্ক। বিশ্ববিদ্যালয়টির ক্লিনিকাল মাইক্রোবায়োলজির অধ্যাপক হান্স ইয়র্ন কলমোস বলছেন, এমন অনেক খারাপ জীবাণু আছে যেগুলো আপনার দেহে সংক্রমিত হতে পরে। কিন্তু আমাদের দেহে যদি একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অতিবেগুনি রশ্মির ডোজ দেয়া যায়, তাহলে এধরনের ক্ষতিকারক জীবাণুর হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।

এই রোবটের নির্মাণ শুরু হয় ২০১৯ সালে। এর দাম ৬৭ হাজার ডলার। তবে এগুলো সুনির্দিষ্টভাবে করোনা ভাইরাস নির্মূল করতে পারে কিনা তার জন্য আলাদা করে কোন পরীক্ষা চালানো হয়নি। কিন্তু নিয়েলসেন বিশ্বাস করেন এই রোবট করোনা ভাইরাসকেও ধ্বংস করতে সক্ষম। তিনি বলেন, ‘সার্স এবং মার্স’র সাথে করোনা ভাইরাসের অনেক দিক থেকেই মিল রয়েছে। এবং আমরা জানি যে ইউভি-সি আলোকরশ্মি দিয়ে এগুলো ধ্বংস করা সম্ভব।’

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের সহযোগী অধ্যাপক ড. লেনা সিরিচও মনে করেছেন, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ইউভি রোবট হতে পারে একটি মোক্ষম অস্ত্র।