মিনিবাস দুর্ঘটনায় উইলস শিক্ষিকার হাত বিচ্ছিন্ন

১০ মার্চ ২০২০


মিনিবাস দুর্ঘটনায় উইলস শিক্ষিকার হাত বিচ্ছিন্ন

রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষা সফরের মিনিবাস দুর্ঘটনায় সৈয়দা ফাহিমা বেগম (৫০) নামে এক শিক্ষিকার বাম হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আহত হয়েছে অন্তত ১৫ শিক্ষার্থী। শিক্ষিকাসহ ১০ শিক্ষার্থীকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (১০ মার্চ) দুপুর ১টার দিকে গোপালগঞ্জ সদরের পাথালিয়া নামক স্থানে শিক্ষা সফরের একটি মিনিবাস সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে সজোরে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গোপালগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, শিক্ষা সফরের একটি মিনিবাস সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনের দিক থেকে ধাক্কা দিলে শিক্ষিকাসহ ১৫ শিক্ষার্থী আহত হন।

এদিকে, গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. অসিত কুমার মল্লিক জানান, ওই শিক্ষিকাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হেলিকপ্টারে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। আহত ৯ শিক্ষার্থীকে এখানে ভর্তি রয়েছে।

আহত শিক্ষার্থীরা জানান, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে টুঙ্গিপাড়ায় শিক্ষা সফর ও বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের আয়োজন করা হয়। আজ সকালে ছয়টি মিনিবাস ও মাইক্রোতে ১২৫ জন শিক্ষার্থী, শিক্ষক, স্কুলের কর্মকর্তা-কর্মচারী কাকরাইল থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। তাদের মিনিবাসে শিক্ষিকা ফাহিমা বেগমসহ ৩১ জন শিক্ষার্থী ছিলেন। বাসটি পাথালিয়া পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী গাড়িকে সাইড দিতে গিয়ে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে শিক্ষিকা ফাহিমার একটি হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এছাড়া ১৫ জন শিক্ষার্থী আহত হয়।