মঙ্গলবার | ৩ আগস্ট ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • বিদেশি প্রভাবিত প্রচারণায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করা হচ্ছে
  • গ্রিন পার্টির নেতা অনামী পলকে দল থেকে বহিস্কারের কোনো সুযোগ নেই
নিম্নে দশটি হলে মুক্তি দিতে হবে

: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক বাংলাদেশ অফিস |



২৮ ফেব্রুয়ারিহৃদয় জুড়ে পাশাপাশি পুরোনো ছবি হিসেবেরবিবারথাকবে কিছু সিনেমা হলে। ছবি: সংগৃহীত২৮ ফেব্রুয়ারিহৃদয় জুড়েডিটেকটিভনামে দুটি নতুন ছবি মুক্তি তালিকায় আছে। কোনো উৎসব ছাড়া একই দিনে নতুন দুটির বেশি ছবি মুক্তির নিয়ম নেই। তবে দুটি ছবির সঙ্গে পুরোনো একাধিক ছবি মুক্তিতে বাধা নেই। হঠাৎ করেই ২১ ফেব্রুয়ারি একটি হলে মুক্তির কথা বলে ২৮ ফেব্রুয়ারি পুরোনো ছবি হিসেবে মুক্তির ঘোষণা দেওয়া হয় ভারত থেকে আমদানি করা ছবিরবিবার এরপর থেকে নতুন দুটি ছবির প্রযোজকেরা বলে আসছিলেন, কোনো হলে মুক্তি না দিয়েই অনিয়ম করে বিদেশি ছবি চালানোর পাঁয়তারা হচ্ছে। যদি একটি হলেও মুক্তি দিয়ে থাকে, এটিও একটি প্রতারণার কৌশল।

অনিয়ম করেরবিবারমুক্তি দেওয়া ঠেকাতে সোমবার বিকেলেহৃদয় জুড়েছবির প্রযোজক যুবরাজ হোসেন প্রযোজক পরিবেশক সমিতিতে যান। তাঁর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আজ মঙ্গলবার বিকেলে উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে প্রযোজক সমিতি। ঘণ্টাখানেক আলোচনার পর সিদ্ধান্ত হয়, নতুন দুটি ছবির সঙ্গেই রবিবার মুক্তি পাবে। তবে নতুন ছবিগুলোর যেসব হল আগে থেকেই চূড়ান্ত ছিল, সেগুলোতেরবিবারবুকিং নিতে পারবে না। আলোচনায় উঠে আসে একটি প্রেক্ষাগৃহে একটি শো চালিয়ে নতুন ছবির সঙ্গে মুক্তির কৌশল বন্ধ করা হবে। বিষয়ে মিটিংয়ে কিছু সিদ্ধান্তও হয়েছে বলে জানান প্রযোজক সমিতির নেতারা।

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারিহৃদয় জুড়েডিটেকটিভনামে দুটি নতুন ছবি মুক্তি তালিকায় আছেমিটিং শেষে সমিতির সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা খোঁজ নিয়ে দেখেছি, গত শুক্রবার শেরপুরের রূপকথা সিনেমা হলে একটিমাত্র শো চলেছে রবিবার ছবিটির। যেহেতু শো চলেছে, ফলে মুক্তি ঠেকানো যাবে না। এভাবে আগেও বেশ কয়েকজন এক শুক্রবারে এক হলে এক শো চালিয়ে পরের শুক্রবার নতুন ছবির সঙ্গে বড় পরিসরে মুক্তির সুযোগ নিয়েছেন। এই প্রযোজক নেতার কথা, এটি একধরনের প্রতারণার কৌশল। এমনিতেই সিনেমা শেষ হয়ে যাচ্ছে, তারপর ধরনের কৌশল বাংলা সিনেমাকে আরও পিছিয়ে দেবে। তিনি বলেন, ‘আমরা নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখন থেকে আর একটি প্রেক্ষাগৃহে নয়, অন্তত ১০টি হলে ছবি মুক্তি না দিলে এভাবে আর ছবি মুক্তির সুযোগ দেওয়া হবে না।

মিটিংয়ে সিদ্ধান্তের সত্যতা নিশ্চিত করে হৃদয় জুড়ে ছবির প্রযোজক যুবরাজ হোসেন বলেন, ‘রবিবার মুক্তির ঘোষণায় আমাদের বেশ কয়েকটি চূড়ান্ত করা হল ছুটে গিয়েছিল, সেগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য রবিবারের আমদানিকারকে বলে দিয়েছেন সমিতির নেতারা। দেশীয় ছবির ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা।

ব্যাপারে রবিবার ছবির আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের ব্যবস্থাপক মঞ্জুর রহমান বলেন, ‘প্রযোজক সমিতি যে সিদ্ধান্ত দিয়েছে, তা আমরা মেনে নিয়েছি।’ 

 


[email protected] Weekly Bengali Times

-->