যাদের হাতে উঠল ফিল্মফেয়ার

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০


যাদের হাতে উঠল ফিল্মফেয়ার

গতকাল রাত বলিউডের জন্য একটা বিশেষ বড় তারার ঝলকময় রাত। সেরাতে বলিউডের রথীমহারথীরা নামী ডিজাইনারদের দিয়ে ডিজাইন করা পোশাক পরে সুন্দর করে সেজে মিলিত হয়েছিলেন ৬৫তম ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অনুষ্ঠানে। আকাঙ্ক্ষিত কালো নারীকে (ফিল্মফেয়ারের ট্রফি) ভেবে ভেবে কতই না রাত পার করেছেন তাঁরা। অবশেষে কাদের হাতে ধরা দিল সেই কাঙ্ক্ষিত পুরস্কার, তা দেখে নেওয়া যাক একনজরে: সেরা সিনেমা (জনপ্রিয়): গালি বয়
সেরা পরিচালক: জোয়া আখতার (গালি বয়)
সেরা সিনেমা (সমালোচনা): যৌথভাবে আর্টিকেল ফিফটিন (অনুভব সিনহা) ও সঞ্চিরিয়া (অভিষেক চৌবে)

সেরা অভিনেতা (জনপ্রিয়): রণবীর সিং (গালি বয়)
সেরা অভিনেতা (সমালোচনা): আয়ুষ্মান খুরানা (আর্টিকেল ফিফটিন)
সেরা অভিনেত্রী (জনপ্রিয়): আলিয়া ভাট (গালি বয়)]

সেরা অভিনেত্রী (সমালোচনা): যৌথভাবে ভূমি পেড়নেকার (ষাণ্ড কি আঁখ) ও তাপসী পান্নু (ষাণ্ড কি আঁখ)
সেরা সহ-অভিনেতা (জনপ্রিয়): সিদ্ধার্থ চতুর্বেদী (গালি বয়)
সেরা সহ-অভিনেত্রী (জনপ্রিয়): আম্রুতা সুভাষ (গালি বয়)

সেরা অ্যালবাম: যৌথভাবে গালি বয় ও কবির সিং
সেরা লিরিক: ডিভাইন এবং অঙ্কুর তিওয়ারি (আপনা টাইম আয়েগা, গালি বয়)
সেরা কণ্ঠশিল্পী (পুরুষ): অরিজিৎ সিং (কলঙ্ক নেহি, কলঙ্ক)

সেরা কণ্ঠশিল্পী (নারী): শিল্পা রাও (ঘুঙ্গরু, ওয়ার)
সেরা নবীন পরিচালক: আদিত্য ধর (উড়ি: দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক)
সেরা নবীন অভিনেতা: অভিমন্যু দাসানি (মারদ কো দারদ নেহি হোতা)

সেরা নবীন অভিনেত্রী: আনন্যা পান্ডে (স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার টু ও পতি, পত্নী ঔর ও)
সেরা মৌলিক গল্প: অনুভব সিনহা ও গৌরব সোলাক্ষ্মী (আর্টিকেল ফিফটিন)
সেরা ক্রিনপ্লে: রিমা কাগতি ও জোয়া আখতার (গালি বয়)

সেরা সংলাপ: বিজয় মাওরা (গালি বয়)
আজীবন সম্মাননা: রমেশ সিপ্পি
এক্সিলেন্স ইন সিনেমা: গোবিন্দ
সেরা নবাগত শিল্পীর আর ডি বর্মণ পুরস্কার: শ্বাশত সাচদেব (উড়ি: দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক)

সব মিলিয়ে রেকর্ড গড়ে এই বছর ১০টি পুরস্কার জয় করেছে গালি বয়। মূল বিভাগের প্রায় সবগুলোতে পুরস্কার জিতেছে এই ছবি। এই ছবিটিকেই গত বছর ভারত থেকে পাঠানো হয়েছিল অস্কারে।
রণবীর সিং মাধুরী দীক্ষিতের হাত থেকে সেরা অভিনেতার পুরস্কার গ্রহণ করার পর ছবিটি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে লিখেছেন,
আমার জীবনের দুর্দান্ত এক মুহূর্ত! পুরস্কার দিচ্ছেন রুপালি পর্দার আইকনিক লিজেন্ড মাধুরী ম্যাম। এই অনুভূতি জীবনে ভোলার নয়।