সুখী হতে কী চাই, জানালেন বিজ্ঞানীরা

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০


সুখী হতে কী চাই, জানালেন বিজ্ঞানীরা

সুখী হতে আমরা কে না চাই? মানুষ তার নিজের জীবনের সবকিছু নিজে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। নিজের হাতে নিয়ন্ত্রণ থাকে না বলে সব ঘটনায় সুখী হওয়াও সম্ভব নয়। কিন্তু তারপরেও কিছু ব্যাপার থেকে যায় যেগুলো আমি-আপনি, আমরা যার যার জীবনে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি।

“বিজ্ঞানে এটা প্রমাণ হয়েছে যে সুখী হতে হলে সচেতন প্রচেষ্টার প্রয়োজন,” বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রে ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ে মনোবিজ্ঞান এবং কগনিটিভ বিজ্ঞান বিভাগের একজন অধ্যাপক লরি স্যান্টোস।

কি সেই প্রচেষ্টা? বিজ্ঞানীরা গবেষণার মাধ্যমে খুঁজে বের করেছেন শরীরচর্চা মানুষকে সুখী করতে পারে। আসলে কথায় তো আছেই, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। আর তাইতো আর স্বাস্থ্য ভালো রাখতে শরীরচর্চার বিকল্প নেই। নিয়মিত শরীরচর্চার অভ্যাস মোটামুটি সব রোগই প্রতিরোধ করতে পারে। বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, যারা এই অভ্যাস গড়েছেন কঠিন রোগসহ বার্ধক্য যেন তাকে ছুঁতেই পারে না। এমনকি মানসিকভাবেও সুস্থ রাখতে পারে শরীরচর্চা।

সম্প্রতি এসব তথ্য জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয় ও যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। জনপ্রিয় জার্নাল দ্য ল্যান্সেটে গবেষণার এই প্রতিবেদন তুলে ধরা হয়। প্রায় ১২ লাখ মার্কিন নাগরিকের শারীরিক ও মানসিক আচরণের ওপর করা এই গবেষণায় এমনই তথ্য মিলেছে। এসব নাগরিকরা অর্থ উপার্জনের চেয়ে শারীরিক কসরতের দিকেই মনোযোগ দিয়েছেন।

প্রতিবেদন অনুসারে, অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা নিয়মিত শরীরচর্চা করেছেন তারা বছরে অসুস্থ হয়েছেন ১৮ দিন। আর যারা অনিয়মিত শরীরচর্চা করেছেন তারা অসুস্থ হয়েছেন গড়ে ৩৫ দিন। গবেষণায় আরো জানা যায়, বছরে যারা ২১ লাখ টাকাও উপার্জন করেন তাদের চেয়ে সুখী শরীরচর্চা করা ব্যক্তিরা।  তবে অতিরিক্ত শরীরচর্চা করতে নিষেধ করেছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে, নিয়মিত ৩০ থেকে ৬০ মিনিট নাগাদ শারীরচর্চা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। 

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার