বিয়ের ১২ দিনের মাথায় বিচ্ছেদ পামেলা অ্যান্ডারসনের

৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০


বিয়ের ১২ দিনের মাথায় বিচ্ছেদ পামেলা অ্যান্ডারসনের

বিয়ে বোধহয় পামেলা অ্যান্ডারসনের বরাতে নেই। মাত্র ১২ দিন আগে বিয়ে করেছিলেন তিনি। অনেক স্বপ্ন নিয়ে গত ২০ জানুয়ারি জন পিটার্সের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন পামেলা। কিন্তু সেই বিয়েও টিকল না। ডিভোর্স হয়ে গেল অভিনেত্রীর। পামেলার বিবাহবিচ্ছেদের খবর প্রকাশিত হয়েছে একটি বিদেশি সংবাদমাধ্যমে। তিনি নিজেই বিষয়টি জানিয়েছেন। অভিনেত্রী বলেছেন, সত্যকে মেনে নিয়ে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি ও তাঁর স্বামী জন পিটার্স। সমস্ত নিয়ম মেনে যেমন বিয়ে করেছিলেন, এক্ষেত্রেও তার অন্যথা হবে না। নিয়মমাফিকই একে অপরকে ডিভোর্স দেবেন তাঁরা। যদিও বিদেশি ওই সংবাদমাধ্যম দাবি করেছে, পামেলা ও জনের আইনি বিয়ের কোনও লাইসেন্স ছিল না।

পামেলার এই বিবাহবিচ্ছেদের খবরে স্বাভাবিকভাবেই অবাক অনুরাগীমহল। কারণ, পিটার ও পামেলার আলাপ প্রায় ৩০ বছরের। তাঁরা তখন একে অপরকে ডেট করতেন। পিটার আগে একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, একাধিকবার একাধিক জনের কাছ থেকে বিয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বিয়ে করেননি। কারণ পামেলাকে কখনও নাকি তিনি ভুলতে পারেনি। তাঁর জন্যই ৩৬ বছর অপেক্ষা করেন। অথচ এই স্বপ্নের বিয়ে ১২ দিনের বেশি টিকল না।

একসময় জগৎজোড়া সুখ্যাতি ছিল এই লাস্যময়ীর। আজও তাই। নয়ের দশকে পুরুষ হৃদয়ে ঝড় তুলত তাঁর বক্ষ বিভাজিকা। শরীরী আবেদনে টইটম্বুর তণ্বী পামেলা অ্যান্ডারসন ছিলেন ‘প্লেবয়’ ম্যাগাজিনের স্টার। তাঁর প্রচ্ছদ স্বপ্ন দেখাতে বাধ্য করত পুরুষদের। তাঁর ‘বেওয়াচ’ও অনেক পুরুষের হৃদয়ে হিল্লোল তুলেছিল। কিন্তু সম্পর্কে স্থায়িত্ব কখনই পাননি এই অভিনেত্রী। চারবার ব্যর্থ হয়েছে তাঁর বিয়ে। টমি লি এবং কিড রককে বিয়ে করেছিলেন তিনি। সেইগুলি ভেঙে যাওয়ার পর তিন নম্বর বিয়ে করেন পেশাদার পোকার খেলোয়াড় রিক সলোমনকে। সেটাও আবার একবার নয়, দু’বার। সেই সম্পর্ক দানা না বাঁধায় একাধিক পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান পামেলা। কিন্তু সেই সম্পর্ক পরিণতি পর্যন্ত পৌঁছয়নি। সম্প্রতি পাঁচ নম্বর বিয়েটা সেরে ফেলেন তিনি। ‘ব্যাটম্যান’ খ্যাত প্রযোজক জন পিটার্সকে মালিবুতে একদম ঘরোয়া অনুষ্ঠানে বিয়ে করেন পামেলা। কিন্তু ভাগ্যের পরিহাস। এই বিয়েও সুখকর হল না। ১২ দিনের মাথায় ভেঙে গেল বিয়ে।