মঙ্গলবার | ৯ মার্চ ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • এবার কানাডায় অনুমোদন পেল জনসনের টিকা
  • ৮ মার্চ টরন্টোর ওপর থেকে জনস্বাস্থ-সংক্রান্ত কিছু বিধিনিষেধ প্রত্যাহার হতে পারে
কানাডার ক্যালগেরিতে সরস্বতী পূজা উদযাপন

: ৩১ জানুয়ারী ২০২০ | দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক |

বাংলাদেশ পূজা পরিষদ অব ক্যালগেরির উদ্যোগে কানাডার ক্যালগেরির সাউথ ভিউ কমিউনিটি সেন্টারে  অনুষ্ঠিত হলো সরস্বতী পূজা। দিনব্যাপী এই আয়োজনে ছিল  শিক্ষার্থীদের বাণী অর্চনা, পুষ্পাঞ্জলি প্রদান ও প্রসাদ বিতরণসহ নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠান।  সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস দেবী সরস্বতী বিদ্যা বাণী ও সুরের অধিষ্ঠাত্রী দেবী। মাঘ মাসে শুক্লপক্ষের পঞ্চমী তিথিতে শুভ্র রাজহাঁসে চেপে দেবী সরস্বতী আসেন জগতে। 

এ বছর পূজার তিথি পড়েছে দুদিন। সনাতন ধর্মীয় রীতিতে প্রত্যুষে দেবীকে দুধ-মধু, দ্ই, ঘি, কর্পূর ও চন্দন দিয়ে গোসল করানো হয়। এরপর চরণামৃত নেন ভক্তরা। তাদের বিশ্বাস দেবী খুশি হলে বিদ্যা ও বুদ্ধি অর্জিত হবে এছাড়াও শিশুদের হাতেখড়ি ব্রাহ্মণভোজন ও পিতৃতর্পণের প্রথাও প্রচলিত আছে। সরস্বতী বৈদিক দেবী হলেও সরস্বতী পূজা বর্তমান রূপটি আধুনিককালে প্রচলিত হয়েছে।

প্রাচীনকালে তান্ত্রিক সাধকেরা সরস্বতী সদৃশ দেবী বাগেশ্বরীর পূজা করতেন। ঊনবিংশ শতাব্দীতে পাঠশালায় প্রতি মাসের শুক্লা পঞ্চমী তিথিতে ধোয়া চৌকির উপর তালপাতার তাড়ি ও দোয়াত-কলম রেখে পূজা করার প্রথা ছিল। শ্রীপঞ্চমী তিথিতে ছাএরা বাড়িতে বাংলা বা সংস্কৃত গ্রন্থ, দোয়াত ও কলমে সরস্বতী পূজা করত। নতুন প্রজন্মের কাছে ধর্মীয় রীতি অনুশাসন ও শিক্ষাকে তুলে ধরার জন্য প্রচুর সংখ্যক প্রবাসী সনাতন ধর্মাবলম্বীরা তাদের শিশুদেরকে নিয়ে পূজামণ্ডপে হাজির হন।