আদালতের অনুমতি নিয়ে পরীক্ষা দিতে গেলেন মিন্নি

১৪ জানুয়ারী ২০২০


আদালতের অনুমতি নিয়ে পরীক্ষা দিতে গেলেন মিন্নি

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের মামলায় আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ চলছিল। পরীক্ষা সময় হওয়ায় আদালতের অনুমতি নিতে অংশ নিতে যান মামলার প্রধান আসামি আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি। তিনিসহ আরও দুই আসামি এ সময় পরীক্ষা দিতে যান।

আজ মঙ্গলবার রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে আসামি আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন, আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি ও মো. সাগরের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের পরীক্ষা চলছে। সাক্ষ্যগ্রহণ চলাকালে আদালতের অনুমতি নিতে পরীক্ষায় অংশ নিতে যান তারা।

বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মিন্নি তার বাবা মো. মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের সঙ্গে বরগুনা সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে যান।

মামলার অন্য দুই আসামি রাব্বি আকন ও সাগরকে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে করে বরগুনা জেলা কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। আদালতের আদেশে কারাগারে থাকায় বরগুনা জেলা কারাগারের ভেতরে পরীক্ষায় অংশ নেন তারা।

পরীক্ষা চলাকালে বরগুনা সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্রে অবস্থানরত মিন্নির বাবা মো. মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের সঙ্গে কথা হলে তিনি আদালতের অনুমতির বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘মিন্নির পরীক্ষার বিষয়টি জানানো হলে আদালত অংশগ্রহণের অনুমতি দেন। মামলার কার্যক্রম চলাকালে তাকে পরীক্ষা দেওয়াতে নিয়ে আসি।’