রাজবাড়ি জেলা জাসদের ত্রি- বার্ষিক কাউন্সিল -২০২০

১৩ জানুয়ারী ২০২০


রাজবাড়ি জেলা জাসদের ত্রি- বার্ষিক কাউন্সিল -২০২০

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি বলেছেন, সংবিধানে রাষ্ট্রীয় মূলনীতি হিসাবে সমাজতন্ত্র থাকার পরও সমাজতন্ত্র শব্দটি উচ্চারণ করতে মন্ত্রী-এমপি-রাজনৈতিক নেতাদের লজ্জা লাগে কেন? তারা কি সংবিধান মানে না? শিরীন আখতার এমপি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে বিস্ময়কর উন্নতি হলেও দারিদ্র, ক্ষুধা, হাহাকার কমলেও সমাজে বৈষম্য বাড়ছে, প্রকট হচ্ছে। লুটেরা-দুর্নীতিবাজ-কালোটাকার মালিকরা কালো টাকার জোরে ধরাকে সরা জ্ঞান করছে। তিনি বলেন, দুর্নীতিবাজ-লুটেরা-কালোটাকার মালিকদের শায়েস্তা করতে হবে, সামাজিক-রাজনৈতিকভাবে বর্জন করতে হবে। উন্নয়নের সুফল সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে এবং বৈষম্যের অবসান করতে সংবিধান নির্দেশিত সমাজতন্ত্রের পথেই অর্থনীতিকে ঢেলে সাজাতে হবে। শিরীন আখতার এমপি বলেন, সংবিধানে বর্ণিত রাষ্ট্রীয় মূলনীতি সমাজতন্ত্র বাস্তবায়নের সংগ্রামের জাসদ অবিচল আছে। শিরীন আখতার এমপি আজ ১৩ জানুয়ারি সোমবার সকাল ১১ টায় রাজবাড়ী জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে রাজবাড়ী জেলা জাসদের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির ভাষণে এ বক্তব্য রাখেন।

জেলা জাসদের সহ-সভাপতি আব্দুল গফুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলের উদ্বোধীন অধিবেশনে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলে কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন খান জকি, শওকত রায়হান, ওবায়দুর রহমান চুন্নু। বক্তব্য রাখেন জাসদ কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামন্ডলির সদস্য সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন মিয়া, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল হক, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ লাল, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক আশরাফুল হক ঝন্টু। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. শফিকুল আজম মামুন, ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা।

উদ্বোধনী অধিবেশনের পর কাউন্সিলের নির্বাচনী অধিবেশনে বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ নিজাম মন্টুকে সভাপতি, মনিরুল হককে সহ-সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ লালকে সাধারণ সম্পাদক করে আগামী তিন বছরের জন্য জাসদ রাজবাড়ী জেলা কমিটি নির্বাচিত করা হয়।