হাজার হাজার মুসলমানদের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে আহমদীয়া মুসলিম জামাত কানাডার ৪৩তম বার্ষিক জলসা শুরু হয়েছে

৬ জুলাই ২০১৯


হাজার হাজার মুসলমানদের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে আহমদীয়া মুসলিম জামাত কানাডার ৪৩তম বার্ষিক জলসা শুরু হয়েছে

আহমদীয়া মুসলিম জামাত কানাডার ৪৩ তম বার্ষিক জলসা হচ্ছে কানাডার বৃহত্তম মুসলিম সমাবেশ আজ জুলাই, শুক্রবার এয়ারপোর্ট রোডে অবস্থিত ইন্টারন্যাশনাল সেন্টারে তিন দিনব্যাপী এই বৃহত্তর মুসলিম সমাবেশের উদ্বোধন হয় জুম্মার নামাজের মাধ্যমে হাজার হাজার মুসলিম এই জুমার নামাজে যোগদান করেন এরপর সাংবাদিক সম্মেলনে উদ্যোক্তারা বিভিন্ন মেইনস্ট্রিম এবং আঞ্চলিক গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি মোবাশ্বের কাহলুন সাহেব, আহমদীয়া মুসলিম জামাত কানাডার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি জনাব লালখান মালিক সাহেব এবং মিডিয়ায় স্পক্সপেরসন জনাব আসিফ খান বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন যারা বলেন আহমদীয়া মুসলিম হচ্ছে সেই ধরনের মুসলিম যা হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম এর ভবিষ্যৎ বাণী অনুযায়ী শেষ যুগে একজন সংস্কারকের আসার কথা এবং সমস্ত মুসলিম জাতিকে একই ছায়া তুলে আনার কথা এবং তিনি শুধু মুসলিমদের জন্য নয় অন অন্য সকল ধর্মের জন্য প্রবর্তক হয়ে এসেছেন এক মুসলমান অন্য মুসলমানের কেন হত্যা করছে কেন নিরীহ শিশুদেরকে হত্যা করছে প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন এই প্রশ্ন তো তাদেরই করা উচিত যারা এই কাজ করছে তবে ইসলামের শিক্ষা হচ্ছে প্রকৃত মুসলমান সেই যার হাত, জিব্বা থেকে অন্য মুসলমানরা নিরাপদ থাকে সুতরাং এই নিরীহ মুসলমানদের হত্যা করার তো প্রশ্নই উঠে না তারা হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর একটি হাদীসের রেফারেন্স দিয়ে বলেন হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাই সালাম মুসলমানদের শিখিয়েছেন শুধু যার উপর জুলুম করা হয় তাকেই সাহায্য করবে না বরং যে জুলুম করছে তাকেও সাহায্য করবেএখন প্রশ্ন হচ্ছে যে জুলুম করছে তাকে কিভাবে সাহায্য করবে? তিনি বলেন যে জুলুম করছে তাকে জুলুম করা হতে নিবৃত্ত করো এভাবেই তাকে সাহায্য করা হবে তথ্যসূত্র: ভয়েস অফ ইসলাম বাংলা