অতিরিক্ত ভিড়ে সোলাইমানির দাফন স্থগিত

৭ জানুয়ারী ২০২০


অতিরিক্ত ভিড়ে সোলাইমানির দাফন স্থগিত

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর প্রধান জেনারেল সোলাইমানির দাফনে অংশ নিতে এসে পদপিষ্ট হয়ে হতাহতের ঘটনায় সোলাইমানির দাফন স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে ইউএসএ টুডে। অতিরিক্ত ভিড় সামলাতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

দেশটির দেশটির জাতীয় জরুরি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার প্রধান কুলিবান্দ জানান, অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে শেষ শ্রদ্ধা ও দাফন অনুষ্ঠান স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে সবাইকে ঘরে ফেরার অনুরোধ করা হয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা ইরনার খবরে বলা হয়,জেনারেল সোলাইমানির মরদেহ বহনকারী গাড়ি ভিড়ের কারণে সহজে সামনের দিকে এগোতে পারছে না। শোকার্ত জনতা খুব কাছ থেকে তাদের বীরের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করেছেন।

জেনারেল সোলাইমানিকে বহনকারী গাড়ীতে একবার হাত বুলিয়ে দিতে পারাকে পরম সৌভাগ্য বলে মনে করছেন অনেকে। এ কারণে গাড়ির সামনে পেছনে শুধুই মানুষ।

দেশটির জরুরি সেবা বিভাগের প্রধান পীর হোসেন কলিভান্দ বলেন, শোকমিছিলে অংশ নিয়ে বেশ কিছু লোক আহত হয়েছেন। অনেকে প্রাণ হারিয়েছেন।

মঙ্গলবার ইরানের দক্ষিণ পূর্বের শহর কেরমানে সোলাইমানির দেহ দাফনের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় সেখানে শামিল হতে যোগ দেন হাজার হাজার মানুষ। ফলে সৃষ্টি হয় বিশৃঙ্খলার। সেখান থেকে হঠাৎ হুরোহুরি শুরু হলে ঘটে এই বিপত্তি।

এর আগে সোমবার তেহরানে সোলাইমানির শেষ যাত্রায় বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন। কেরমান বিমানবন্দরে সোলায়মানির মরদেহ পৌঁছায়। কাসেম সোলেইমানির দাফনে যোগ দিতে এবং তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শোকের প্রতীক কালো পোশাকে কেরমানে শহরে জড়ো হন লাখ লাখ মানুষ। এ সময় অনেকেই সোলায়মানির চিত্র সম্বলিত পোশাক পড়েছেন এবং তার ছবি বহন করেন। অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে দাফনে অংশ নিতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ৩৫ জনের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হন কমপক্ষে আরও ১৯০ জন।