বিএনপির কাছে গণতন্ত্র আশা করা যায় না: কাদের

২৫ ডিসেম্বর ২০১৯


বিএনপির কাছে গণতন্ত্র আশা করা যায় না: কাদের

বিএনপির কাছে গণতন্ত্র আশা করা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্র আছে। গণতন্ত্র নেই বিএনপি’র ভিতরে। তাদের ঘরে এবং দলেই গণতন্ত্র নেই। তারা কিভাবে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবে?  বুধবার দুপুরে কুমিল্লা সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের সঙ্গে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

‘গণতন্ত্র রক্ষার স্বার্থে সিটি নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি’ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বিএনপি আজ অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্রের চর্চা করে না। আওয়ামী লীগের এক বছর আগে বিএনপির সম্মেলন হয়েছে। আওয়ামী লীগ আবারো সম্মেলন শেষে করেছে। আমি দ্বিতীয় বারের মতো সাধারণ সম্পাদক হয়েছি। কিন্তু আজ পর্যন্ত বিএনপি ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যদের নিয়ে একটি কনফারেন্সও করতে পারেনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ৫০১ জনের ‘জাম্বো জেট’ মার্কা একটি কমিটি করেছে। তাহলে বিএনপির কাছে কি গণতন্ত্র আশা করা যায়?

তিনি বলেন, কনফারেন্স করতে না পেরে সরকারের বিরুদ্ধে শুধু বাজে কথা বলে বিএনপি। সরকার তাদেরকে কোনো বাধা দেয়নি। বিএনপি সব জায়গায় মিছিল, মিটিং এবং সমাবেশ করছে। তারা ব্যর্থ হয়েছে আন্দোলনে এবং নির্বাচনে। সেখানে সরকারের কোনো দোষ নেই। কারণ জনগণ বিএনপি এবং তার নেতাকর্মীদের ডাকে সাড়া দেয় না।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, লেটেস্ট টেকনোলজি ইভিএম এর ব্যবহারে সুষ্ঠু নির্বাচন হয়। অতীতে যেসব নির্বাচন কেন্দ্রে ইভিএম এ ভোট গ্রহণ হয়েছে, ওই সব কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু হয়েছে। বেশিরভাগ কেন্দ্রে বিরোধীদল বিএনপিই জিতেছে। ইভিএম এ নির্বাচন হলে কারও অসুবিধা নেই। ইভিএম এ সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে পারে। আমি বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান জানাবো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর ও পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামসহ প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তারা।