থার্টি ফার্স্ট নাইটে ছাদেও গান বাজনা নিষিদ্ধ

১৯ ডিসেম্বর ২০১৯


থার্টি ফার্স্ট নাইটে ছাদেও গান বাজনা নিষিদ্ধ

থার্টি ফার্স্ট নাইট ও খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসব বড় দিনে উন্মুক্ত স্থানের পাশাপাশি বাড়ির ছাদেও গান-বাজনা নিষিদ্ধ করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ডিএমপি সদর দপ্তরে বড়দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপন উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা এবং ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বড় দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপন উপলক্ষে রাজধানী ঢাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে ডিএমপি। এর মধ্যে থাকছে প্রত্যেকটি চার্চে পোশাকে ও সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য। চার্চে দর্শনার্থীকে ঢুকতে হবে আর্চওয়ে দিয়ে। তল্লাশি করা হবে তাদের। অনুষ্ঠানস্থল ডগ স্কোয়াড দিয়ে সুইপিং করা হবে। নিরাপত্তায় থাকবে ফায়ার টেন্ডার ও অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা। চার্চ এলাকায় ভাসমান দোকান বা হকার বসতে দেওয়া হবে না। কোনো প্রকার ব্যাগ ও ব্যাগপ্যাক নিয়ে চার্চে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

থার্টি ফার্স্ট নাইটেও থাকছে কঠোর নিরাপত্তা। বড় দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইটে উন্মুক্ত স্থানে ও বাড়ির ছাদে গান-বাজনা ও আতশবাজি ফোটানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যে কোনো ধরনের ডিজে পার্টি নিষিদ্ধ থাকবে। থার্টি ফার্স্ট নাইটে আইডি কার্ড ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। গাড়ি প্রবেশের ক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টিকার থাকতে হবে এবং শাহবাগ ও নীলক্ষেত এলাকা দিয়ে প্রবেশ করবে।

সমন্বয় সভায় সভাপতিত্ব করেন ডিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি, ফায়ার সার্ভিস, ডিপিডিসি ও ডেসকোসহ সরকারি বিভিন্ন সেবাদানকারী সংস্থার প্রতিনিধি।