কাঁথা-বালিশ নিয়ে ভিসির বাসভবনে ঢাবি শিক্ষার্থীরা

২৯ অক্টোবর ২০১৯


কাঁথা-বালিশ নিয়ে ভিসির বাসভবনে ঢাবি শিক্ষার্থীরা

গণরুমের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে কাঁথা-বালিশ নিয়ে ভিসির বাসায় সামনে অবস্থান নিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। ভিসির বাসায় প্রবেশ করতে চাইলে শিক্ষার্থীদের বাধা দেন প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্যরা। এরপর তারা বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে ডাকসু সদস্য তানভীর হাসান সৈকতের নেতৃত্ব গণরুমের শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন। এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেন। 

স্লোগানে তারা বলেন, ‘যাচ্ছি পচে গণরুমে, এখানে নাকি স্বপ্ন জমে’, ‘গণরুমের বঞ্চনা মানি না মানব না’, ‘গণরুমে আমরা থাকি, প্রশাসন খায়-দায় ঘুমায় নাকি’, ‘আমরা এখন চুপসে গেছি, জ্ঞানশূন্য কালোমাছি’ ইত্যাদি।

গণরুম বন্ধের দাবিতে তানভীর হাসান সৈকত বলেন, উপাচার্য আমাদের সর্বোচ্চ অভিভাবক। গণরুমের বঞ্চনা সহ্য করতে না পেরে আমরা উপাচার্যের বাসায় উঠতে এসেছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ অভিভাবক হিসেবে উপাচার্য আমাদের সঙ্গে অভিভাবকসুলভ আচরণ করেননি। তাই বাধ্য হয়ে তার বাসভবনের সামনেই অবস্থান নিয়েছি।

সহকারী প্রক্টর আবদুর রহিম বলেন, ‘এটা তো একদিনে সমাধান করা যাবে না। শিক্ষার্থীরা দাবি জানাতেই পারে। আমি তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। কিন্তু আমার কথা তারা শোনেনি। উপাচার্যের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চাচ্ছে। স্যার একটি প্রোগ্রামে আছেন। আমরা স্যারের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করছি।’

এ ঘটনায় ভিসির বাসভবনের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে আসেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান। 

তিনি বলেন, ‘আমরা এমনিতে দেখতে এসেছি। এ বিষয়ে যা বলা প্রয়োজন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যাররা বলবেন।’

শিক্ষার্থীরা গণরুম সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।