আন্দোলনে সাকিব-তামিমরা, ক্রিকেট বর্জনের হুমকি

২১ অক্টোবর ২০১৯


আন্দোলনে সাকিব-তামিমরা, ক্রিকেট বর্জনের হুমকি

বেতন ভাতা বৃদ্ধিসহ নানা দাবিতে হঠাৎ করেই আন্দোলনে নেমেছেন সাকিব-তামিম-মুশফিকসহ সবাই। তাদের দাবি না মানলে সব ধরনের ক্রিকেট বয়কটের হুমকি দিয়েছেন। সোমবার দুপুর ২টায় প্রথমে তারা তাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিসিবিতে। এরপর পৌনে ৩টার দিকে বিসিবি একাডেমির সামনে এসে জড়ো হন তারা। এরপর মিডিয়ার সামনে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরলেন সাকিব আল হাসান। সেখানে ক্রিকেটাররা ১১ দফা দাবি তুলে ধরেন এবং জানিয়ে দেন দাবি না মানা পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেটকে তারা বর্জন করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে সাকিব জানান, বিপিএল, ডিপিএল কিংবা ঘরোয়া ক্রিকেটে আমাদের পারিশ্রমিক আগের মতো বাড়ানো হচ্ছে না। আমরা এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় খেলতে যাচ্ছি, টিম হোটেলে থাকছি। নূন্যতম আমাদের যাতায়াতের ভালো ব্যবস্থা রাখা উচিত। হোটেলের জিম ব্যবস্থা, সুইমিং পুল ব্যবস্থা থাকতে হবে। এটা একজন পেশাদার ক্রিকেটারের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

এই নিয়ে বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ক্রিকেট পাড়া, চাপা উত্তেজনাও কাজ করছে বিসিবিতে। সংবাদ সম্মেলনে এসেছেন সাকিব, তামিম, মাহমুদউল্লাহ, মিরাজ, ইমরুল, সৌম্য, মুশফিক, সাইফউদ্দিন, এনামুল বিজয়, মুমিনুল, মিঠুন, জুনায়েদ সিদ্দিকী, নুরুল হাসান সোহান, রনি তালুকদার, শফিউল ইসলাম, তাসকিন, মোস্তাফিজরা।

এ সময় তামিম জানান, আমরা শুধু ক্রিকেট নিয়েই পড়ে থাকি। কিন্তু যদি একজন গ্রাউন্ডসম্যানের পারিশ্রমিকের কথা বলেন, সেটা কিন্তু বাড়ানো হচ্ছে না। তারা মাসে ৫ থেকে ৬ হাজারা টাকা দেওয়া হয়। আমরা বাংলাদেশি কোচ প্রমোট করতে পারছি না। যেখানে বিদেশি একজন কোচের পারিশ্রমিকের সমান বাংলাদেশের ২০ জন কোচ। এছাড়া, দেশি একজন কোচের পারফর্ম ভালো হলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তাকে পরের ম্যাচে সুযোগ দেওয়া হয় না।