টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত

১৮ অক্টোবর ২০১৯


টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুইজন রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত হয়েছেন। শুক্রবার ভোর রাত ৪টার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং নাফ নদীর সীমান্তে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে বিজিবির সদস্যরা ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরী বন্দুক, দুই রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও দুইটি ধারাল কিরিচ উদ্ধার করেছে।

নিহতরা হলেন- কক্সবাজারের উখিয়া কুতুপালং ক্যাম্পের সোলতান আহমদের ছেলে মো. আবুল হাসিম (২৫) ও আবু ছিদ্দিকের ছেলে নুর কামাল (১৯)।

টেকনাফ ২নং বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, গোপন সূত্রে টেকনাফের হোয়াইক্যং বিওপির সদস্যরা জানতে পারেন যে মিয়ানমার থেকে একটি ইয়াবার চালান সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। এই খবরে দায়িত্বরত বিজিবির সদস্যরা হোয়াইক্যং সীমান্তের নাফ নদীর পারে অবস্থান নেয়। এসময় একটি কাঠের নৌকা করে কিছু লোক নাফ নদী পার হয়ে এ পারের সীমান্তে উঠার চেষ্টা করলে বিজিবির সদস্য তাদের পাচারকারি হিসেবে চ্যালেঞ্জ করে তাদের আটকের চেষ্টা চালায়। কিন্তু বিজিবির সংকেত অমান্য করে পাচারকারিরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। এক পর্যায়ে পাচারকারিরা নৌকা নিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরী বন্দুক, দুই রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও দুইটি ধারাল কিরিচ উদ্ধার করে। এসময় দুইজন লোককে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে বিজিবির সদস্য তাদের উদ্ধার করে প্রথমে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করে। মৃতদেহগুলো ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আইনে টেকনাফ থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।