আবরারকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন অনিক সরকার

১২ অক্টোবর ২০১৯


আবরারকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন অনিক সরকার

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার তিন নম্বর আসামি অনিক সরকার (২২)। শনিবার ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুল ইসলামের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন অনিক।

অনিক বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ছিলেন। আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ।

আবরাব হত্যা মামলার ৩ নম্বর আসামি অনিক সরকার রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বড়ইকুড়ি গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেন ও শাহিদা বেগমের ছেলে। তিনি বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ছাত্র। পড়েন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষে। আবরার ফাহাদ হত্যার পরের দিন ৭ অক্টোবর তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরের দিন ৮ অক্টোবর তাঁকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত। সেই রিমান্ড শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন। আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আজ শনিবার পর্যন্ত মোট ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা মহানগর  পুলিশ (ডিএমপি)। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় প্রথম ঢাকা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন মামলার ৫ নম্বর আসামি বুয়েটের বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র এবং বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত উপসমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল। গতকাল শুক্রবার জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার ৭ নম্বর আসামি বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত ক্রীড়া সম্পাদক মো. মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন।