আবরার হত্যা : আজও উত্তাল বুয়েট-ঢাবি

১০ অক্টোবর ২০১৯


আবরার হত্যা : আজও উত্তাল বুয়েট-ঢাবি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শের-ই-বাংলা হলের ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদ এবং সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে ক্ষোভ-বিক্ষোভে চতুর্থ দিনেও উত্তাল বুয়েট ক্যাম্পাস। এদিকে, প্রতিবাদ কর্মসূচি চলছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় (১০ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে গণসংহতি সমাবেশ ও গণপদযাত্রা কর্মসূচি পালন করবেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন নানা কর্মসূচিন মধ্য দিয়ে আবরার হত্যার বিচারের দাবি জানাচ্ছেন।

গতকাল বুধবার (৯ অক্টোবর) ডিবি দক্ষিণের (লালবাগ জোন) অতিরিক্ত উপকমিশনার খন্দকার আরাফাত লেনিন জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৩ জনকে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, গতকাল রাফাতসহ আটক ৩ জনের ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

পুলিশের ধারণা এ হত্যাকাণ্ডে ২৪-২৫ জন অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে ১৯ জনকে শনাক্ত করে মামলার আসামি করা হয়েছে। আবরার হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত আরও তিন আসামিকে ঢাকা ও গাজীপুর থেকে গ্রেফতার করে ডিবি।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে মতামত প্রকাশ কালে অভিনেতা আবুল হায়াত বুয়েটে (বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়) প্রয়োজনে আগামী ১০ বছর রাজনীতি চর্চা বন্ধ রাখার পক্ষে মতামত দেন।

বর্তমানের ভিসির সমালোচনা করে তিনি তার ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং তার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। এরপর ছাত্র রাজনীতি নিয়ে তিনি মত প্রকাশের সময় বলেন, ছাত্র রাজনীতি খারাপ নয়।  ছাত্র রাজনীতির জন্য আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি, স্বৈরাচার মুক্ত হয়েছি। ছাত্র রাজনীতি অবশ্য্ই ভালো জিনিস। কিন্তু যারা এটাকে পেছন থেকে ব্যবহার করছে তাদের বিরূদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রয়োজনে আগামি দশ বছরের জন্য বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করা হোক।