কে কোন ভাইয়ের মিটিংয়ে যায় এগুলা আমি দেখি না : আইভী

৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯


কে কোন ভাইয়ের মিটিংয়ে যায় এগুলা আমি দেখি না : আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা সেলিনা হায়াৎ আইভি বলেছেন, আমার কাছে কে কোন দল করে তা আমার দেখার বিষয় না। কাউন্সিলর বিএনপি না আওয়ামীলীগ, কোন ভাইয়ের মিটিং এ যায় এগুলা আমি দেখি না। আমি দেখি জনগনের উন্নয়ন। মঙ্গলবার বিকেলে বন্দর উপজেলার মাহমুদনগর এলাকায় ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে আটটি নতুন উন্নয়ন প্রকল্পের কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে  এ কথা বলেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

মেয়র আইভী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুশাসন অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে আলাদা প্রকল্প নিয়ে পরিকল্পিতভাবে রাস্তাঘাট, ড্রেনেজ ব্যবস্থা, খেলার মাঠ, পুকুর খনন ও সবুজায়নসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে ২০ কোটি টাকা। অচিরেই এই কাজের দরপত্র আহবান করা হবে বলে জানান মেয়র আইভী।

তিনি বলেন, আমার কাছে কে কোন দল করে তা দেখার বিষয় না। কাউন্সিলর বিএনপি না আওয়ামী লীগ, কোন ভাইয়ের মিটিংয়ে যায় এগুলা আমি দেখি না। আমি দেখি জনগণের উন্নয়ন। 

ত্রিবেণী ব্রিজ প্রসঙ্গে মেয়র আইভী দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ঠিকাদার ভালো না পরায় এই সমস্যা হয়েছে। খুব শীঘ্রই এ সমস্যা সমাধান হবে।

তিনি বলেন, সেপ্টেম্বর মাসেই ঢাকা থেকে আমরা ওয়াসা নিয়ে নিচ্ছি। তবে তাদের লাইন আর পাইপে যে সমস্যা তাতে সম্পূর্ণ স্বচ্ছ পানি পেতে দুই বছর সময় লেগে যাবে। তারপরেও মানুষ বিশুদ্ধ পানি পাবে।

ড্রেন থেকে শুরু করে যত ধরনের চাহিদা আছে সব কিছু পূরণ করার আশাবাদও ব্যক্ত করেন তিনি।

মাহমুদনগরের রেললাইন প্রসঙ্গে আইভী বলেন, রেল লাইনের জায়গা নিয়ে যে অভিযোগটি উঠেছে তা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। মামলার জন্য উন্নয়ন কাজ থেমে থাকে না।

আইভী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ যেখানেই খালি জায়গা সেখানেই মাঠ গড়ো, পুকুর গড়ো, গাছ লাগাও। অতএব এই জায়গা যদি (রেললাইনের পাশের) আমরা দখল না করি, এটা নেবে কর্ণফুলী। অতএব আমি যা করি নিজের জন্য নয় বরং জনগণের বৃহৎ স্বার্থেই করি।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ওয়ার্ড কাউন্সিলরাসহ পঞ্চায়েত কমিটির নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুশাসন অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে আলাদা প্রকল্প নিয়ে পরিকল্পিতভাবে রাস্তাঘাট, ড্রেনেজ ব্যবস্থা, খেলার মাঠ, পুকুর খনন ও সবুজায়নসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে ২০ কোটি টাকা। অচিরেই এই কাজের দরপত্র আহবান করা হবে বলে জানান মেয়র আইভী।

তিনি বলেন, আমার কাছে কে কোন দল করে তা দেখার বিষয় না। কাউন্সিলর বিএনপি না আওয়ামী লীগ, কোন ভাইয়ের মিটিংয়ে যায় এগুলা আমি দেখি না। আমি দেখি জনগণের উন্নয়ন। 

ত্রিবেণী ব্রিজ প্রসঙ্গে মেয়র আইভী দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ঠিকাদার ভালো না পরায় এই সমস্যা হয়েছে। খুব শীঘ্রই এ সমস্যা সমাধান হবে।

তিনি বলেন, সেপ্টেম্বর মাসেই ঢাকা থেকে আমরা ওয়াসা নিয়ে নিচ্ছি। তবে তাদের লাইন আর পাইপে যে সমস্যা তাতে সম্পূর্ণ স্বচ্ছ পানি পেতে দুই বছর সময় লেগে যাবে। তারপরেও মানুষ বিশুদ্ধ পানি পাবে।

ড্রেন থেকে শুরু করে যত ধরনের চাহিদা আছে সব কিছু পূরণ করার আশাবাদও ব্যক্ত করেন তিনি।

মাহমুদনগরের রেললাইন প্রসঙ্গে আইভী বলেন, রেল লাইনের জায়গা নিয়ে যে অভিযোগটি উঠেছে তা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। মামলার জন্য উন্নয়ন কাজ থেমে থাকে না।

আইভী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ যেখানেই খালি জায়গা সেখানেই মাঠ গড়ো, পুকুর গড়ো, গাছ লাগাও। অতএব এই জায়গা যদি (রেললাইনের পাশের) আমরা দখল না করি, এটা নেবে কর্ণফুলী। অতএব আমি যা করি নিজের জন্য নয় বরং জনগণের বৃহৎ স্বার্থেই করি।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ওয়ার্ড কাউন্সিলরাসহ পঞ্চায়েত কমিটির নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।