সুখী থাকতে নিজেকে জানুন, নিয়ন্ত্রণে রাখুন

২৪ আগস্ট ২০১৯


সুখী থাকতে নিজেকে জানুন, নিয়ন্ত্রণে রাখুন

জীবনের প্রতিটা দিনই গুরুত্বপূর্ণ। অবহেলা করে সে দিনটাকে নষ্ট করা উচিত নয়। সময়টা চলে গেলে আর ফেরানো সম্ভব নয়; তাই প্রতিটি মুহূর্তকে সুন্দর করে অতিবাহিত কারা উচিত। জীবনকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে সবার আগে নিজেকে পরিচালনা করতে জানতে হবে। যাকে বলা হয় ‘সেল্‌ফ ম্যানেজমেন্ট’। জীবন গুছিয়ে নিতে নিজেকে জানাটা অতি জরুরি। নিজেকে জানার মাধ্যমে মিলিয়ে নেওয়া যায় চাওয়া পাওয়ার হিসাব। এই হিসাব মেলানটাও জরুরি বিষয়। এছাড়া নিজেকে খুশি রাখাটা অসম্ভব হয়ে পড়ে। তাই না বুঝে অক্লান্ত ছোটা বন্ধ করতে হবে।

 একটি ‘ম্যানেজড’ জীবন যেমন নিজেকে জানতে সাহায্য করে। তেমনই নিজের সীমাবদ্ধতাগুলোকেও জানায়। কামনা, ক্রোধ, লোভ, লালসা এবং হিংসা-এই পাঁচ হচ্ছে সব সমস্যার মূল কারণ। এই সবই আমাদের জন্য নেতিবাচক ফলাফল ডেকে আনে। জীবনের এমনই বিভিন্ন বিষয়ে একজন সেলফ ম্যানেজমেন্ট কাউন্সিলারের পরামর্শ তুলে ধরা হলো:

কীভাবে নিজেকে ম্যানেজ করব: সবার আগে মনস্থির করতে হবে। নিজেকে সময় দিতে হবে। জানতে হবে ভাল-খারাপ দিকগুলো। উপলব্ধি করতে হবে নিজের ক্ষমতাকে। সেই অনুযায়ী জীবনের লক্ষ্য ঠিক করতে হবে। তবেই এটি হবে যুক্তিযুক্ত। সেলফ ম্যানেজমেন্টের বিভিন্ন পদ্ধতি আছে।

১.  অন্যের সঙ্গে নিজের তুলনা করা বন্ধ করতে হবে। এই ধরনের তুলনা আত্মবিশ্বাস কমিয়ে দেয়।

২. নিজ প্রতিক্রিয়ার ওপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে হবে। এর জন্য যোগ ব্যায়াম ও মেডিটেশন করা যেতে পারে। এসব অনুশীলনে স্নায়ুও শান্ত হবে।

৩. অন্যের কথা শুনতে হবে, বুঝতে হবে। এতে করে দ্বন্দ্ব এড়ানো সম্ভব।

৪. ঘুম মাধ্যমে আমাদের শরীর পুনরুজ্জীবিত হয়। তাই সঠিক সময়ে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমাতে হবে।

৫. কোনো কাজে বিরক্তি বা কষ্ট মনে হলে, তা থেকে আপাতত নিজেকে দূরে রাখতে হবে।

একটি কথা মনে রাখতে হবে নেতিবাচক মনোভাবের শরীরে নির্দিষ্ট ধরনের হরমন নিষ্কাষন হয়। তাই স্বভাবতই সব কিছুই খারাপ লাগতে শুরু করে। এমন সময় নিজেকে বোঝাতে হবে ‘সব ঠিক আছে’। নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে মনকে আদেশ করতে হবে। তবেই নিজেকে বশে রাখা সম্ভব।