বঙ্গবন্ধুর কথা ষোলআনা অমান্য করা হচ্ছে: ড. কামাল হোসেন

২৪ আগস্ট ২০১৯


বঙ্গবন্ধুর কথা ষোলআনা অমান্য করা হচ্ছে: ড. কামাল হোসেন

বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা ষোলআনা অমান্য করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ (শনিবার) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘যারা বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে উল্টা-পাল্টা কাজ করছে তারা কিন্তু মহাঅপরাধ করছে। বঙ্গবন্ধু কখনই চাইতেন না এ দেশে স্বৈরশাসন কায়েম হোক। এ দেশের মানুষ সবসময় বঙ্গবন্ধুকে মনে রাখবে। কারণ তিনি কখনো জনগণের অধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেলতেন না। আর জনগণ যে সব ক্ষমতার মালিক তা তিনি শিখিয়ে গেছেন। এবং জনগণকেই এ দেশের মালিকানা সংবিধানের মাধ্যমে জনগণের হাতে দিয়ে গেছেন। জনগণ হবে ক্ষমতার মালিক। তাই বঙ্গবন্ধু সবসময় অমর হয়ে থাকবেন। বাংলাদেশ যত দিন থাকবে তিনি অমরই হয়ে থাকবেন।’

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘নির্বাচিত মানে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত। কিন্তু খুবই দুঃখজনক বিষয় হলো- নির্বাচন পদ্ধতিটাকে উল্টে দেওয়া হয়েছে। টাকা-পয়সা, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপপ্রয়োগের মধ্য দিয়ে এখন একটা রায় দিয়ে দেওয়া হয়। মানুষ যাকে ভোট দিতে চায় না, সে সামনে এসে বলে, আমি নির্বাচিত, আমরা রাষ্ট্র ক্ষমতার মালিক। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধুর কথাটাকে ষোলআনা অমান্য করা হচ্ছে। এরই শিকার আমরা বার বার হয়েছি। আবার আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আমরা মুক্তও হয়েছি। বিশেষ করে যিনি মনে করেছিলেন, উনি (এরশাদ) এ দেশে ১৫ বছর ক্ষমতায় থাকবেন। উনাকে তো আমরা সরালাম সফল আন্দোলন করে, ঐক্যবদ্ধ হয়ে।’  

সংকট নিরসনে আবারও সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘ঘরে-ঘরে, গ্রামে-গ্রামে গিয়ে বলুন, বঙ্গবন্ধুর শিক্ষাটা ভুলে গেলে চলবে না। আমরা ঐক্যবদ্ধ হবো। কোনো ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে নয়, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে কেন্দ্র করে আমরা ঐক্যবদ্ধ হব।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবু সাঈদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট মহসীন রশীদ, মেসবাহ উদ্দীন আহমেদ, মোকাব্বির খান, সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া প্রমুখ।