টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা নিহত, অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার

২২ আগস্ট ২০১৯


টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা নিহত, অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদী দিয়ে ইয়াবা পাচারের সময় বিজিবির সদস্যদের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, অস্ত্র ও তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। বুধবার (২১ আগস্ট) রাত দেড়টার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উলুবুনিয়া এলাকায় নৌকা দিয়ে নাফ নদী পার হওয়ার সময় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মৃত ছৈয়দ হোসেনের ছেলে মোঃ সাকের (২২) ও টেকনাফের মুচনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মৃত মোঃ আলীর ছেলে নুর আলী (৩০)।

টেকনাফস্থ ২ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার জানান, টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উলুবুনিয়া এলাকার নৌকায় করে ইয়াবা নিয়া নাফ নদী পার হওয়ার সময় বিজিবির সদস্যরা থামানোর সংকেত দিলে পাচারকারীরা গুলিবর্ষণ শুরু করে। পরে বিজিরি সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায়। গুলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থলে দুইজন ইয়াবা পাচারকারীর গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখে। গুলিবিদ্ধ দুইজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। গুলাগুলিতে বিজিবির দুইজন সদস্যও আহত হয়েছেন।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি দেশিয় তৈরি বন্দুক, তিন রাউন্ড কার্তুজ ও দুটি দারালো কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহতদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে বলে জানান বিজিবির এই কর্মকর্তা।