বৃহঃস্পতিবার | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • অন্টারিওতে আক্রান্তের সংখ্যা অস্বাভাবিক বেড়ে যেতে পারে
  • সংক্রমণের চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা
গীতি কবি ফজল-এ-খোদা

: ১৯ জুলাই ২০২১ | সৈয়দ আযম মোহাম্মদ |

ফজল-এ-খোদা

জুলাই এর ৪ তারিখে ডেইলিস্টারসহ আরো বাংলাদেশী সংবাদ পত্রে খবরটি এসেছে যে গীতিকার  /গীতি কবি ফজল এ খোদা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ( ইনা….রাজেউন)। তার সাথে একবার আমার পরিচয় হয়েছিলো। ভেবেছিলাম সেই পরিচয়ের সূত্র ধরে একজন গুনি মানুষের কথা লিখবো তার জীবদ্দশাতেই কিন্ত্ত সে সুযোগ আর রইলো না ।

১৯৭৫/৭৬ সালে আমাদের এলাকায় আমরা একটি কিশোর মেলা গড়ে তুলি সেটির নাম -শাপলা শালুকের আসর। ঢাকা থেকে এ আসরের সাথে ফজল এ খোদা জড়িত ছিলেন। একটি মাসিক পত্রিকা বের হ’ত সে সময় ঢাকা থেকে তাতে কখনও কখনও আমাদের লেখা ও ছবি প্রকাশিত হ’ত। আসরে প্রতি সপ্তাহে শুক্রবারে আমরা একসাথে বসতাম-গান গাইতাম, কবিতা আবৃত্তি করতাম, উপস্থিত গল্প বলতাম।

১৯৭৬ সালের প্রথম ৬ মাস ঢাকাতেই ছিলাম বড় বোনের লিবিয়া যাত্রার কাজে  এবং মেজ বোনের মেডিকেলের ইন্টারভিউ এর জন্য। সে সময় মাঝে মাঝে বাড়ী ফিরে কলেজ করতাম, আসরে যেতাম আবার ঢাকায় আসতাম। একদিন আসরের কাজে গেলাম ধানমন্ডি ২ নং রোডে বাংলাদেশ বেতারের অফিসে। তখন সব কিছু চলছিলো সামরিক শাসকের শাসনে।

আমার পরিচয় দেয়ার পর ফজল এ খোদার কাছে টেলিফোন গেলো চেনাজানাহীন একজনকে খুব সহজেই ভিতরে যাওয়ার অনুমতি দিলেন শুধুমাত্র শাপলা-শালুক আসরের পিরচয়ের সূত্রে। আমিতো খুব খুশী। তার মাথায় ঝাকড়া চুল যা একজন কবিকে মানায়। তিনি চা খেতে দিলেন। কথার মাঝে এক পর্যায়ে আমার লেখা একটি কবিতা তাকে দেখতে দিলাম। আমি ভাবলাম কবিতা দেখে তিনি খুশী হবেন কারন তিনিও কবি। তার পাশে ডাকলেন একটি সাদা কাগজে লিখলেন-জল পড়ে/পাতা নড়ে। তিনি বললেন তোমার কবিতাতে ছন্দ, মাত্রা নেই। ছন্দ আমি বুঝি কিন্ত্ত কবিতায় মাত্রা কোথায় থাকে তা না জেনে বুঝেই আমি কবিতা লিখি। জীবনে প্রথম লেখা এবং পরের অনেক লেখা আমাদের অনেকের কবিতায় এই বিষয়িট পরিলক্ষিত। তিনি জল পড়ে এর নীচে একটি একটি করে দাগ টানলেন তদ্রুপ পাতা নড়ে এর নীচেও দাগ টেনে আমাকে বললেন দুটি লাইনে এখানে মাত্রা এক এক করে এসেছে এবং ছন্দ এসেছে পড়ে/নড়ে তে। ঐটুকুই আমার বোঝার জন্য যথেষ্ট। 

আমি এখনও কবিতা লেখার সময় সেটা মনে করি এবং তার কথা মনে পড়ে। তিনি এখন আর আমাদের মাঝে নেই। কবি ফজল এ খোদা জান্নাতবাসী হউন সবার সাথে আমিও এই দোয়া করি। 

ইনুভিক, কানাডা


[email protected] Weekly Bengali Times

-->