বৃহঃস্পতিবার | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • অন্টারিওতে আক্রান্তের সংখ্যা অস্বাভাবিক বেড়ে যেতে পারে
  • সংক্রমণের চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা
অতিরিক্ত আরও ৫০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাওয়ার আশা করছে অন্টারিও

মধ্য ডিসেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৬৩ লাখ ডোজ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রয়োগ করেছে অন্টারিও। আগামীতে ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে প্রাইমারি কেয়ার ফিজিশিয়ানরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিন এলিয়ট। প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীরা বর্তমানে চিকিৎসকের কার্যালয় ও পপ-আপ ক্লিকিসহ প্রায় ৭০০ স্থানে ভ্যাকসিন দিচ্ছেন। আর কত সংখ্যক প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা কর্মী এই কর্মসূচিতে সহায়তা করবেন সে ব্যাপারে কিছু নিশ্চিত করেনি প্রাদেশিক সরকার। আগামী ২১ জুলাই রিওপেনিং পরিকল্পনার তৃতীয় ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে অন্টারিও। এই ধাপে ইনডোর ও আউটডোরে বড় পরিসরে জমায়েতের অনুমোতি দেওয়া হবে। ধারণক্ষমতার সর্বোচ্চ কর্ত শতাংশ ব্যবহার করা যাবে বা আদৌ তা করা হবে কিনা সে ব্যাপারে কিছু জানায়নি সরকার।

এদিকে, পূর্ণাঙ্গভাবে ভ্যাকসিনেটেড হয়েছেন অর্থাৎ উভয় ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন অন্টারিওর অর্ধেকের বেশি প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিক। এই সপ্তাহে অতিরিক্ত আরও ৫০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাওয়ার আশা করছে অন্টারিও।  অন্টারিওর ভ্যাকসিনেশন পরিকল্পনার সর্বশেষ হালনাগাদ তথ্য অনুযায়ী, উভয় ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন অন্টারিওর ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সী নাগরিকদের ৫১ শতাংশ। বৃহস্পতিবার সকালে অন্টারিওর স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিন এলিয়ট এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ভ্যাকসিন আমাদের কাছে মহামারি থেকে বেরিয়ে আসার টিকিট। এ কারণেই আমরা যেহেতু রিওপেনিং পরিকল্পনার তৃতীয় ধাপে প্রবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছি তাই যত দ্রুত সম্ভব সবাইকে ভ্যাকসিন নেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। তথ্য অনুযায়ী, অন্টারিওতে অন্তত প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৭৮ শতাংশের বেশি প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিক। ১২ থেকে ১৭ বছর বসয়ীদের মধ্যে প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৫৯ শতাংশ। আর উভয় ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৪ শতাংশ নাগরিক। 


[email protected] Weekly Bengali Times

-->