ফোনই জানাবে শরীরের খবর?
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ধরুন আপনার এমন এক স্মার্টফোন আছে, যা দিয়ে ম্যালেরিয়া, চোখের অসুখ, এমনকি মাদকাসক্তিও পর্যবেক্ষণ করা যায়৷ নতুন নতুন প্রযুক্তি আপনার স্মার্টফোনকে ধীরে ধীরে রূপান্তরিত করছে মোবাইল ক্লিনিকে৷ সে দিন আর বেশি দূরে নয়৷ স্মার্টফোন এবং স্বাস্থ্য নিয়ে যখন আলোচনা করি, আমরা সাধারণত এর ক্ষতিকর দিকগুলো নিয়েই ভাবি৷ এর মধ্যে রয়েছে আসক্তি, বিষণ্ণতা, মনসংযোগের অভাব ইত্যাদি৷ কিন্তু এর ভালো দিকগুলো নিয়ে কি আমরা ততটা ভাবি?

স্মার্টফোন প্রযুক্তিতে সম্প্রতি বেশকিছু বড় ধরনের উন্নতি ঘটেছে৷ মোবাইল ফোন এখন কিছু জটিল রোগ, যেমন দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা থেকে শুরু করে মেলানোমা ও ম্যালেরিয়া নির্ণয়ও করতে পারে৷ বিশ্বের ৩৯ শতাংশ মানুষের হাতে এখন স্মার্টফোন আছে৷ উন্নয়নশীল দেশগুলোতে প্রায় ৫০ শতাংশ মানুষের হাতে আছে স্মার্টফোন৷ ফলে গ্রামীণ ও দরিদ্র এলাকাগুলোতে স্মার্টফোন এখন স্বাস্থ্যসেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে৷

দৃষ্টিশক্তি নির্ণয়

চোখের ডাক্তারের চেম্বারে গেলে সহজেই বোঝা যায়, দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষায় কী বিশাল বিশাল আকারের মূল্যবান যন্ত্রপাতি এ কাজে ব্যবহার করতে হয়৷ কিন্তু যেসব জায়গায় এই ধরনের যন্ত্র সহলভ্য না, বেশ কয়েক বছর ধরে সাসব জায়গায় বিকল্প হিসেবে স্মার্টফোন ব্যবহার করে পরীক্ষা চালাচ্ছেন গবেষকরা৷ বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন, স্মার্টফোনের ক্যামেরার সঙ্গে কিছু বিশেষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে মানুষের চোখের পেছন দিকের ছবিও তোলা সম্ভব৷

সম্প্রতি জার্মানির বন বিশ্ববিদ্যালয়ের চক্ষু ক্লিনিকের সহযোগিতায় ভারতের ব্যাঙ্গালোরে শংকর আই সেন্টার একটি পাইলট প্রকল্প চালু করে৷ ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন এমন ২০০ রোগীকে চিকিৎসা দেয়া হয়৷ এই রোগের চিকিৎসা না হলে অন্ধ হয়ে যাওয়ার ঝুঁকিও থাকে৷ স্মার্টফোন দিয়ে পরীক্ষা চালিয়ে প্রতি পাঁচজনে একজনের মধ্যে এই রোগ সফলভাবে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে৷

স্মার্টফোন ক্যামেরায় এজন্য যে বিশেষ প্রযুক্তি দরকার হয়, সাধারণত তার দাম কয়েকশ' ইউরো পর্যন্ত হতে পারে৷ কিন্তু ভারতের বিজ্ঞানীরা শুধু একটি এইডি বাতি, একটি ব্যাটারি ও অ্যাডহেসিভ টেপ ব্যবহার করে একই প্রযুক্তি তৈরি করেছেন, যার বাজারমূল্য এক ইউরোর চেয়েও কম৷ স্মার্টফোন ক্যামেরা দিয়ে রেকর্ড করা চোখের অবস্থার ভিডিওর মান অন্যান্য প্রযুক্তির মতো এত ভালো না হলেও, এটি সহজলভ্য, দামে কম এবং এতে কাজটি ঠিকমতোই হয়৷

বহনযোগ্য অণুবীক্ষণ

সামনাসামনি কখনো অণুবীক্ষণ যন্ত্র দেখে থাকলে মোবাইল ফোনকে এর বিকল্প হিসেবে ভাবা আপনার জন্য সত্যিই কঠিন৷ কিন্তু আফ্রিকার বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলে মোবাইল ক্যামেরা দিয়ে এখন ম্যালেরিয়াসহ অন্যান্য সংক্রামক রোগ শনাক্ত করছেন ডাক্তাররা৷ গবেষকদের মতে, অণুবীক্ষণের মতো কাজ করতে পারে, এমন প্রায় সবকিছুই রয়েছে একটি মোবাইল ক্যামেরার মধ্যে৷ মোবাইলের লেন্স ও ক্যামেরা সেন্সর ঠিক অণুবীক্ষণ যন্ত্রের মতো করেই সাজানো রয়েছে, দরকার কেবল আকার বড় করার প্রযুক্তি এবং পর্যাপ্ত আলো৷

এ সমস্যার সমাধানে এখন বাজারে চলে এসেছে কিছু বহনযোগ্য ছোট আকারের থ্রিডি প্রিন্ট করার উপযোগী ক্লিপ৷ এসব ক্লিপ মোবাইল ক্যামেরার সাথে যুক্ত করে খুব সহজেই তোলা যাচ্ছে হাই-ডেফিনিশন ছবি৷

ঘুমের ওষুধের ওভারডোজ নির্ণয়

কেবল মোবাইল ফোনের ক্যামেরাই যে স্বাস্থ্যসেবায় ভূমিকা রাখছে, তা নয়৷ স্মার্টফোনের সোনার প্রযুক্তি ব্যবহার করে মাদকাশক্তি নিরাময়ের পথও খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা৷ নিদ্রাহীনতার সমাধানে ব্যবহার করা কিছু মোবাইল অ্যাপের সাফল্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার বিজ্ঞানীরা ‘সেকেন্ড চান্স' নামে একটি অ্যাপ তৈরি করেছেন৷ এই অ্যাপ এক মিটার দূর থেকেও মানুষের নিঃশ্বাসের প্যাটার্ন নির্ধারণ করতে পারে৷

মানুষের শ্রবণ-ক্ষমতার বাইরে, এমন সোনার সাউন্ড নির্গমণ করে এই অ্যাপ৷ নিঃশ্বাস যদি উদ্বিগ্ন হওয়ার পর্যায়ে ধীর গতির হয়ে পড়ে, তখন এই অ্যাপে অ্যালার্ম বেজে ওঠে৷ তা-ও যদি ব্যবহারকারীর সাড়া পাওয়া না যায়, নিজে থেকেই কল চলে যায় হাসপাতাল বা পুলিশের জরুরি নম্বরে৷

 

 

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০৯:৪৯:২৮