দুরন্ত ঘূর্ণিতেই বিরাটরা বিধ্বস্ত, প্রথম ম্যাচেই বাজিমাত চেন্নাইয়ের
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
এই হচ্ছে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি! আইপিএলে ও যে কখন কী চমক দেবে তা কেউ জানে না! যেমন শনিবার দেখাল এ বারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে বিরাট কোহালির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে।

ধোনির প্রথম চমকটা ছিল—চার জনের বদলে তিন জন বিদেশিকে নিয়ে মাঠে নেমে পড়া। ‘ক্যাপ্টেন কুল’ মাঠের বাইরে রেখেছিল স্যাম বিলিংস, ফ্যাফ ডুপ্লেসি, মিচেল স্যান্টনার ও ডেভিড উইলিকে। দ্বিতীয় চমকটা সাড়ে তিন জন স্পিনার—হরভজন সিংহ, রবীন্দ্র জাডেজা, ইমরান তাহির। সঙ্গে সুরেশ রায়নাকে নিয়ে মাঠে নামা।

এ রকম শান্ত ও ধুরন্ধর ক্রিকেট মস্তিষ্ক কাজে লাগিয়েই আরসিবি-কে সাত উইকেটে হারিয়ে এ বারের আইপিএলে প্রথম ম্যাচ জিতে নিল চেন্নাই সুপার কিংস। তাও আবার ১৪ বল বাকি থাকতে।

স্লো-টার্নার পিচ হওয়ায় ধোনির দলে সাড়ে তিন জন স্পিনার রাখার বিষয় বোঝা গিয়েছিল। আরসিবি অধিনায়ক বিরাট কেন যুজবেন্দ্র চহাল, মইন আলির সঙ্গে ওয়াশিংটন সুন্দরকে ব্যবহার করল না সেটা বুঝতে পারলাম না। 

ধোনি তৃতীয় চমকটা দিয়েছিল, দ্বিতীয় ওভারে হরভজনকে বল করতে ডেকে। টি-টোয়েন্টি ম্যাচে স্পিনার দিয়ে শুরু করতে গেলে যে কোনও অধিনায়ক তার দলের প্রধান স্পিনারকে দিয়েই শুরু করবে। এ ক্ষেত্রে ইমরান তাহিরকেই ডাকার কথা। কিন্তু সবাইকে অবাক করে ধোনি বল দিল হরভজন সিংহকে (৩-২০)। 

তার পরে পাওয়ার প্লে শেষ হতেই জাডেজা ও ইমরান তাহিরকে নিয়ে এসে আরসিবিকে ১৭.১ ওভারে ৭০ রানে অলআউট করে দিল। আর ওখানেই শেষ হয়ে যায় ম্যাচটা। কারণ, ২০ ওভারের ম্যাচে যদি বিপক্ষ নির্ধারিত ওভারের পুরোটা না খেলে ৭০ রানে আউট হয়ে যায়, তা হলে সেখানেই প্রতিপক্ষ মানসিক ভাবে ম্যাচটা আগেই জিতে নেয়। এক্ষেত্রেও সেটাই হয়েছে। 

 

২৪ মার্চ, ২০১৯ ১০:০২:৫২