‘মেসিকে জাতীয় দলে ডাকা ভুল হয়েছে’
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
লিওনেল মেসিকে জাতীয় দলে ডেকে ঠিক কাজ করা হয়নি বলে মনে করেন আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী কোচ সিজার লুই মেনোত্তি। ভেনেজ়ুয়েলার বিরুদ্ধে ফিফা ফ্রেন্ডলিতে খেলার জন্য বার্সেলোনার মহাতারকাকে ডাকা হয়। মাদ্রিদে জাতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলনও করছেন মেসি। কিন্তু মেনোত্তির মনে হয়েছে, মেসি অসম্ভব ক্লান্ত। সামান্য একটা ম্যাচের জন্য অকারণে তাকে চাপে ফেলা হয়েছে। সঙ্গে তার আরও যুক্তি, এই ধরনের ম্যাচেই নতুনদের দেখে নেওয়ার সুযোগ আসে। আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন মেসিকে নিতে গিয়ে সেই সুযোগ নষ্ট করেছে। রাশিয়া বিশ্বকাপের পরে মেসি জাতীয় দলের হয়ে খেলেননি। এমনও শোনা যাচ্ছিল, তিনি এতটাই হতাশ যে আর কখনও দেশের জার্সি পরতে চান না। হয়তো আর্জেন্টিনার হয়ে শেষ বার খেলে ফেলেছেন রাশিয়াতে। বিশ্বকাপে ফ্রান্সের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল আর্জেন্টিনা। মেসি অবশ্য নিজের দেশের ফেডারেশনের ক্রমাগত অনুরোধ উপেক্ষা করতে পারেননি। মাদ্রিদে ভেনেজ়ুয়েলা ম্যাচ খেলতে রাজি হয়ে যান। এই মুহূর্তে দুরন্ত ছন্দেও আছেন মেসি। লা লিগায় শেষ ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছেন। শেষ তিন ম্যাচে তার গোল ৬টি।

আটাত্তরে বিশ্বজয়ী আর্জেন্টিনার কোচ মেনোত্তি এখন নিজের দেশে ফুটবল সংক্রান্ত বড় পদে আছেন। তবু মেসিকে ডাকা সমর্থন করতে পারেননি। এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, মেসিকে খেলানো হলে সেটা সত্যিই আমার কাছে উদ্বেগের ব্যাপার হবে। ওকে দেখে মনে হয়েছে এই মুহূর্তে ভীষণই ক্লান্ত। মনে রাখতে হবে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মতো প্রতিযোগিতায় ছেলেটা বার্সাকে টানছে। শুধু শারীরিক নয়, এই ক্লান্তি বেশি করে মানসিক। আর সেটা বেড়ে যাবে জাতীয় দলে খেলতে হওয়ায়। আমার অন্তত ওকে দেখে সে রকমই মনে হচ্ছে।

শুক্রবার ভেনেজ়ুয়েলার বিরুদ্ধে খেলার চার দিন পরেই আর্জেন্টিনা ফিফা ফ্রেন্ডলি খেলবে মরক্কোর সঙ্গে। মেসি অবশ্য এই ম্যাচ খেলবেন না জানিয়েছেন। আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন চায় কোপা আমেরিকায় মেসি খেলুন। যে প্রতিযোগিতা এবার হবে ব্রাজিলে। আর্জেন্টিনা যেমন কোপায় সাফল্যের জন্য মেসিকে ভরসা করছেন তেমনই বার্সাও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তার উপর নির্ভরশীল।

প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব টটেনহ্যামের ম্যানেজার মাউরিসিও পচেত্তিনো পর্যন্ত বলেছেন, একটাই কারণে বার্সা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে পারে। ওদের দলে খেলে বিশ্বের সেরা ফুটবলার। মেসি মাঠে এমন সব ব্যাপার করে যাকে অপ্রত্যাশিত বললেও কম বলা হবে। সব চেয়ে বড় কথা সেটা এগারো-বারো বছর ধরে করছে। তাও তিন চার দিন অন্তর। সূত্র: আনন্দবাজার

২১ মার্চ, ২০১৯ ১২:৫৯:৪৫