ফেডেরারের কাছে হেরে সেলফি তুললেন সেরিনা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


টেনিস ইতিহাসের অন্যতম অবিস্মরণীয় ম্যাচের সাক্ষী থাকলেন পার্‌থের দর্শকরা। যে ম্যাচে নেটের এক দিকে সেরিনা উইলিয়ামস আর অন্য দিকে রজার ফেডেরার। যাদের মিলিত সিঙ্গলস গ্র্যান্ড স্ল্যামের সংখ্যা ৪৩। মঙ্গলবার হপম্যান কাপের মিক্সড ডাবলস ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলেন এই দুই কিংবদন্তি। ম্যাচে ৪-২, ৪-৩ ফলে সেরিনা-ফ্রান্সেস তিয়াফো জুটিকে হারাল ফে়ডেরার-বেলিন্দা বেনচিচের দল।

সেরিনার সার্ভিসে ফেডেরারের রিটার্ন। টেনিসপ্রেমীদের জন্য পার্‌থে এ রকমই একটা অকল্পনীয় দৃশ্য নতুন বছরে অপেক্ষা করেছিল। কী মনে হল সেরিনার সেই ভয়ঙ্কর সার্ভিস ফিরিয়ে? টেনিস গ্রহের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ফেডেরারের জবাব, ‘সেরিনার সার্ভিসের মুখে পড়ে আমি একটু নার্ভাস হয়ে গিয়েছিলাম। চাপে ছিলাম। ওর সার্ভিস নিয়ে সবাই এত কথা বলে। এখন আমি বুঝলাম, কেন সেরিনার সার্ভ এত দুর্দান্ত। ওর সার্ভিস বুঝতে পারাই কঠিন।’ সেরিনার বিরুদ্ধে খেলার অভিজ্ঞতা নিয়ে ফেডেরার আরও বলেন, ‘দারুণ মজা হল। সেরিনার বিরুদ্ধে খেলতে নামলে বোঝা যায়, কতটা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ও। সেরিনার এই ব্যাপারটা আমার খুব ভাল লেগেছে।’

হপম্যান কাপের এই লড়াইয়ে মঙ্গলবার শুরুতে তিয়াফোকে ৬-৪, ৬-১ হারিয়ে সুইজারল্যান্ডকে এগিয়ে দেন ফেডেরার। এর পরে স্কোর ১-১ করেন সেরিনা। বেনচিচকে ৪-৬, ৬-৪, ৬-৩ হারিয়ে। এর পরে দু’দলের ভাগ্য ঠিক হওয়ার মিক্সড ডাবলস ম্যাচে জিতে যান ফেডেরাররা। যার জেরে হপম্যান কাপ জেতার দিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলেন ফেডেরার। অন্য দিকে ছিটকে গেল সেরিনার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

ম্যাচের পরে সেরিনা-রজার একই সঙ্গে সেলফি তোলেন। রাতে নিজেদের ছবি টুইট করে ফেডেরার লেখেন, ‘ওয়াহ, কী একটা রাত গেল!’ ম্যাচের পরে সেরিনাও বলেন, ‘দারুণ মজা হল। কেরিয়ারের এই সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে এমন একটা ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়ে খুব ভাল লাগছে।’

প্রথম সেটে ফেডেরার বা সেরিনা- কেউই একে অন্যের সার্ভিস ভাঙতে পারেননি। কিন্তু নেটে ফেডেরারের অসাধারণ টাচ প্লে খেলার ভাগ্য ঠিক করে দেয়। দ্বিতীয় সেট চলাকালীন বেশ কয়েকবার দেখা গেছে নিজের ডান কাঁধ চেপে ধরছেন সেরিনা। পরে অবশ্য চোট নিয়ে প্রশ্ন উড়িয়ে দিয়ে এই কিংবদন্তি খেলোয়াড় বলেন, ‘পরপর ম্যাচ খেলতে হল। আমি তরতাজা হওয়ার বিশেষ সময় পাইনি। এটা খুব স্বাভাবিক ব্যাপার।’ সূত্র: আনন্দবাজার

 


০২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৪৭:৩১