বিমানবন্দরেই বাগদান এশিয়াডে সোনাজয়ী ভিনেশের
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট থেকে দেশে ফিরে খেলোয়াড়েরা আগে কী করে? বিমানবন্দরে ছোটখাটো আনুষ্ঠানিকতার পর হয়তো বাড়ি যায়, তাই তো? কিন্তু চলতি জাকার্তা এশিয়ান গেমসে সোনাজয়ী কুস্তিগির ভিনেশ ফোগত করলেন সম্পূর্ণ ভিন্ন কিছু। বিমানবন্দরে বাগদানে আবদ্ধ হলেন বন্ধু সমবীর রাঠির সাথে। জাকার্তা থেকে নয়াদিল্লি বিমানবন্দরে অবতরণের পর আংটি বদল করেন এই নারী কুস্তিগির। পাত্র বন্ধু এবং আরেক অ্যাথলেট সমবীর রাঠি। ৫০ কেজি ফ্রি স্টাইল বিভাগে জাপানের ইউকি ইরিকে হারিয়ে সোনা জয়ের পর দেশে আসা ভিনেশকে স্বাগত জানাতে বিমানবন্দরে এসেছিলেন তার পরিবারের স্বজনেরা। সাথে ছিলেন সমবীর এবং তার স্বজনেরাও।

বিমানবন্দরের টার্মিনাল ভবন থেকে বেরিয়ে পার্কিং লটে দাড়িয়েই আংটি বদল করেন এই দুই যুগল। কেক কেটে তা উদযাপনও করে ফেলেন পরিবারের স্বজনদের সাথে। পরে নিজেদের ইন্সটাগ্রাম আইডিতে প্রকাশ করেন সেই মুহুর্তগুলোর ছবি। নিজ আইডিতে ভিনেশ লেখেন, “সঠিক সিদ্ধান্ত নিলাম”।

এশিয়ান গেমস চলাকালীনই জ্যাভলিন থ্রোয়ার নীরজ চোপড়ার সঙ্গে ভিনেশের প্রেম নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। গেমস চলাকালীন তাঁরা দুজনে নাকি লুকিয়ে প্রেম করছেন এমন গুঞ্জনও শোনা গিয়েছিল। সেই খবরকে চাপা দিতেই তড়িঘড়ি বাগদানের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন কী না ভিনেশ; তা নিয়েও অবশ্য তৈরি হয়েছে নতুন গুজব।

তবে ভিনেশের সঙ্গে সোমবীরের প্রেম দীর্ঘদিনের বলেই জানা যাচ্ছে। এরপর ভিনেশ জানান,"না,না। এটা তেমন কিছু নয়। ওই আর্টিকেলে আমার সঙ্গে নীরজকে জুড়ে ভুল বার্তা দেওয়া হয়েছে। সোমবীর এবং আমি ৭-৮ বছর ধরে বন্ধু এবং আমাদের সম্পর্ক সকলেই জানে।" জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জজয়ী কুস্তিগীর সমবীর এখন নর্দান রেলওয়ের ট্রেন টিকিট পরীক্ষক৷

 

২৮ আগস্ট, ২০১৮ ১২:৫৫:৫৩