যে কারণে গভীর রাতে সাব্বিরের বাসায় নায়লা নাঈম
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


আবারো বিতর্কের মুখে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান। উইন্ডিজ সফরেই বাজে পারফরম্যান্সের কারণে সমর্থকদের তোপের মুখে পড়েছিলেন। এরপর নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্ট থেকে কিছু সমর্থকদের গালিও দিয়েছিলেন। যদিও পরবর্তীতে তা অস্বীকার করেন সাব্বির।

এবার সাব্বিরকে নিয়ে নতুন করে আরেকটি বিতর্ক শুরু হয়েছে। যেই বিতর্কের মধ্যে আছে মডেল ও অভিনেত্রী নায়লা নাঈমেরও নাম। বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল একাত্তরের এক প্রতিবেদনে এসব চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে।

সেই প্রতিবেদনে বলা হয়, গভীর রাতে সাব্বিরের বাসায় যাওয়া-আসা করতেন মডেল ও অভিনেত্রী নায়লা নাঈম। এমনটাই জানিয়েছেন সাব্বিরের গাড়িচালক মোহাম্মদ জিহাদ। তার দাবী, শুধু নাইলা নয়, বিভিন্ন সময়ে একাধিক নারীর যাতায়াত হয় সাব্বিরের বাসায়।

নায়লা নাঈম প্রসঙ্গে সাব্বিরের গাড়িচালক জিহাদ বলেন, ‘একটা বিজ্ঞাপন দেখছিলাম। তারপর দেখলাম এটা নায়লা নাঈম। ওকে আমি চিনতাম না। কিন্তু যখন বিজ্ঞাপন দেখলাম তখন তো বুঝলাম এই আপুরে আমি চিনি। এ কেন! এই আপুকে তো আমি টিভিতে দেখি আগে থেকেই। কিন্তু এই আপু তো আগে থেকেই আসতো (সাব্বিরের বাসায়)। এমনকি টাকা দিয়ে দারোয়ানকে ফিক্সড করা ছিল। সে আসলেই দারোয়ান ওপরে পাঠাই দিতো।'

নায়লা নাঈমের সঙ্গে ২০১৬ সালে একটি কোমল পানীয়র বিজ্ঞাপনে অংশগ্রহণ করেন সাব্বির। পরবর্তীতে সেই বিজ্ঞাপন কুরুচিপুর্ণ ও অশোভন হওয়ায় নিষিদ্ধ হয়। চুক্তি বাতিলের কারণে সেই বিজ্ঞাপন থেকে বড় অংকের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছিল সাব্বির।

একাত্তরের প্রতিবেদনে সাব্বিরের ড্রাইভার দেন আরো চাঞ্চল্যকর তথ্য। তিনি জানান, শুধু নায়লা নাঈমই নন, সাব্বিরের বাসায় আরও একাধিক নারীর যাতায়াত ছিল।

 


০১ আগস্ট, ২০১৮ ১৮:০৬:৪১