বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ের পর নেইমারের প্রতিক্রিয়া আসলে কেমন ছিলো?
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
নেইমার
"বিশ্বকাপ থেকে ব্রাজিলের বিদায় আমাকে গভীর শোকের মধ্যে ফেলে দিয়েছিল" এমনটাই জানিয়েছেন এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপের সবচেয়ে আলোচিত খেলোয়াড়দের একজন নেইমার। এবার বিশ্বকাপ জয় করতে পারে-এমন দলগুলোর মধ্যে বুকিদের অন্যতম পছন্দের দল ছিল ব্রাজিল। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনাল পর্ব থেকে বাদ পড়ে যায় তারা। বেলজিয়ামের বিপক্ষে সেই ম্যাচে পরাজয়ের পর কি প্রতিক্রিয়া ছিল দলের তারকা ফুটবলার নেইমারের? নিজের দেশ টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়ার পর নেইমার বলেন, "এরপর বলের দিকেও তাকাতে ইচ্ছে করতো না। এবং বিশ্বকাপের বাকি খেলাগুলো দেখার কোনও আশাও ছিল না।" প্যারি সঁ জার্মেইনের (ফরাসী ক্লাব)তারকা বলেন, তিনি খুবই শোকাহত হয়ে পড়েছিলেন, খুব দু:খ হচ্ছিল তার, কিন্তু দু:খবোধকেও পাশ কাটাতে হয়েছে।

"আমার ছেলে আছে, আমার পরিবার ও বন্ধুরা আছে এবং তারা কেউ চায়নি আমি অবসন্ন-ভাবে মুখ-গোমরা করে বসে থাকি।"

২৬ বছর বয়সী নেইমার আরও জানিয়ে দেন যে, পিএসজি ক্লাব ছেড়ে তার রিয়াল মাদ্রিদে চলে যাওয়ার যে খবর বিভিন্ন মাধ্যমে আসছে সে খবরের পুরোটাই গুজব। বিশ্বজুড়ে রেকর্ড ২০০মিলিয়ান পাউন্ডে বার্সেলোনা ছেড়ে গত গ্রীষ্মে পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার। এরপর থেকে ঘরোয়া যত খেলায় ফরাসি এই ক্লাবটি অংশ নেয় তার প্রায় সবগুলোতে সব মিলিয়ে ২৮টি গোল করেন তিনি।

এই ব্রাজিলিয়ান খেলার সময় মাঠে ফাউলের ঘটনার শিকার হলে মাঠে তার পড়ে যাওয়া এবং গড়াগড়ির বিষয়টিকে 'অভিনয়' উল্লেখ করে অনেকে তার সমালোচনা করতে থাকেন। মেইমারের বক্তব্য, রেফারিদের কাছ থেকে তিনি আরও বেশি সুরক্ষা আশা করেছেন। এই ফুটবলার বলেন যারা ফাউল করে তাদের সমালোচনা না করে সাধারণ মানুষ সমালোচনা করেছে- তাদের- যারা ফাউলের শিকার হচ্ছে। বিশ্বকাপে গিয়েছিলাম খেলার জন্য, বিপক্ষ দলকে হারাতে, উল্টো-লাথি খেতে নয়।

"আমার সমালোচনা ছিল অতিরঞ্জিত কিন্তু আমি এই ধরনের বিষ আমি মোকাবেলা করে অভ্যস্ত"। রেফারি হওয়া আর মাঠে খেলা -দুটো তো একইসময়ে করা যায়না, কিন্তু কখনো কখনো এমন সময় আসতো যে সেটাই আমি প্রার্থনা করতাম। -বিবিসি বাংলা

 

 

২৩ জুলাই, ২০১৮ ১১:৫৩:২৪