ফাইনালে মাঠে থাকবেন ক্রোয়েশিয়ার আলোচিত প্রেসিডেন্ট
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
প্রথমবারের মত বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠায় আনন্দে ভাসছে গোটা ক্রোয়েশিয়া। সেই আনন্দ উৎযাপনে বাদ যাননি দেশটির প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ ও প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেজ প্লেনকোভিচও। ন্যাটোর সম্মেলনে যোগ দিতে বর্তমানে ব্রাসেলসে আছেন কিতারোভিচ। তাই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালের ম্যাচটি গ্যালারিতে বসে দেখা না হলেও দেশের এমন জয়ে খুশি তিনি। প্রত্যাশা করেন ফাইনালেও তার দেশই জিতবে বিশ্বকাপ ট্রফি।

১৯৯৮ বিশ্বকাপে প্রথম অংশগ্রহণ। সেবারই তৃতীয় স্থান অধিকার করে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলো ক্রোয়েশিয়া। রাশিয়া বিশ্বকাপে সেই অসম্পূর্ণ স্বপ্নকে সম্পূর্ণ করতে শুরু থেকেই বদ্ধ পরিকর ক্রোয়েশিয়া। আর সেজন্যই আজ তারা ফাইনালের মঞ্চে।

ব্রাজিলের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে উৎসাহ জোগাতে গ্যালারিতে বসে খেলা উপভোগ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ। ম্যাচ শেষে জয়ের আনন্দ ফুটবলারদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন তিনি।

ন্যাটোর সম্মেলনে যোগ দিতে বর্তমানে বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে আছেন কিতারোভিচ। তাই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনাল ম্যাচটি মাঠে বসে উপভোগ করতে না পারলেও, সেই আনন্দ ছুঁয়ে গেছে তাকেও। প্রশংসায় ভাসালেন ক্রোয়েট ফুটবলারদের। এদিকে, দিনদিন শক্তিশালী দলে পরিণত হচ্ছে ক্রোয়াটরা এমনটি জানালেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ বলেন, 'আমার দেশের ছেলেরা ভালো খেলেছে। আর তাই আমরা আজ ফাইনালে। সত্যিই এ অনুভূতি প্রকাশ করার মত নয়। প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো আর আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমরা মস্কোতে একসাথে বসে ফাইনাল খেলা উপভোগ করবো।'

ক্রোয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেজ প্লেনকোভিচ বলেন, '১৯৯৮ এ যে দলটা ছিলো তাদের থেকে অনেক বেশি পরিণত এখনকার ক্রোয়েশিয়া দল। ফুটবল বিশ্বে অন্যতম শক্তিশালী দলে পরিণত হচ্ছে ক্রোয়েশিয়া। আর এতে করে শুধু ফুটবলেই নয়, অন্যান্য ক্ষেত্রেও এগিয়ে যাবে আমাদের দেশ।'

এদিকে, ফুটবলাররা জয়ের এ ধারা ধরে রেখে ফাইনালেও ট্রফিটা নিজেদের করে নেবে বলে মনে করেন ক্রোয়েশিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।

প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ বলেন, 'আমরা একটা ভালো সময় পার করছি। আর আশা করছি এর ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। এবং আমরা ফাইনাল শেষে ট্রফি নিয়েই ঘরে ফিরবো।'

১৪ জুলাই, ২০১৮ ০০:৩৩:৫৯