সুয়ারেজের কামড়ে বিক্ষত সৌদি, রাশিয়ার পর নক-আউটে নিশ্চিত উরুগুয়েও
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
১০০ তম আন্তর্জাতিক ম্যাচে গোল। এই বিরল রেকর্ড যাদের দখলে রয়েছে তাদের মধ্যে একজন হলেন ভারতীয় দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। সুনীল ছেত্রীদের সেই বিরল ক্লাবে নাম লেখালেন উরুগুয়ের তারকা স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। আর সুয়ারেজের এই বিরল রেকর্ডের গোলই বিশ্বকাপের নক আউটে পৌঁছে দিল দু’বারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়েকে। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেল নখদন্তহীন সৌদি আরব।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে পাঁচ গোল খাওয়ার পর অনেকে ধরেই নিয়েছিলেন উরুগুয়ের বিরুদ্ধেও প্রচুর গোল হজম করতে হবে সৌদিকে। কিন্তু বুধবার সুয়ারেজ-কাভানিদের বিরুদ্ধে কিছুটা হলেও সাবলীল দেখাল সৌদিকে। অস্কার তাবারেজের ছেলেদের সমানে সমানে টক্কর দিল এশিয়ার দলটি। বল-দখলের লড়াইয়েও প্রথমার্ধে উরুগুয়েকে টেক্কা দিয়েছিল আরব দেশটি। খাপছাড়া প্রথমার্ধে দু’দলের পার্থক্য গড়ে দিল সুয়ারেজের গোলই।

২৩ মিনিটে কর্নার থেকে কার্লোস সানচেজের ক্রসের অভিমূখ ঠিকমত আন্দাজ করত পারেননি  সৌদি আরবের গোলকিপার মহম্মদ আল-আওয়াস। গোল-লাইন থেকে এগিয়ে এসেও বলে হাত লাগাতে পারেনি আল-আওয়াস। বল এসে পড়ে সুয়ারেজের পায়ে, সুযোগসন্ধানী স্ট্রাইকারের মতই ফাঁকা গোলে বল ঠেলতে ভুল করেননি বার্সা মহাতারকা। শততম ম্যাচে তাঁর গোলের স্মৃতি হিসেবে ম্যাচ বলটি নিজেরে কাছে রেখে দিলেন উরুগুয়ের মহাতারকা। সেই সঙ্গে তাঁর দখলে গেল একমাত্র উরুগুয়ে ফুটবলার হিসেবে তিনটি আলাদা আলাদা বিশ্বকাপে গোল করার বিরল রেকর্ড।

একগোলে পিছিয়ে গিয়ে প্রথমার্ধের শেষপর্যন্ত সৌদি আরব বেশ কয়েকবার আক্রমণ শানানোর চেষ্টা করলেও ফাইনাল থার্ডে গিয়ে আটকে যায় তাদের গতি। দ্বিতীয়ার্ধেও ছবিটা খানিকটা একই রকম ছিল। দু’দলের মধ্যে বল দখলের টক্কর চলল সমানে সমানে কিন্তু সেভাবে আক্রমণ দানা বাঁধেনি কোনও পক্ষেই। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকেই ফ্রি-কিক থেকে সুয়ারেজের শট সৌদি ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে চলে যায় গোলমুখে। সে যাত্রা অবশ্য কোনওরকম মানরক্ষা করেন আল-আওয়াস। এরপর দু দলই বেশ কিছু ‘হাফ চান্স’ তৈরি করেছিল, তাতে অবশ্য খুব একটা সুবিধা হয়নি। ম্যাচের ৮৫ মিনিটে ব্যক্তিগত ক্যারিশমায় একটি সুযোগ তৈরি করেছিলেন কাভানি। কিন্তু দুর্দান্ত দক্ষতায় কাভানির পা থেকে বল ছিনিয়ে নেন সৌদি গোলকিপার।শেষ পর্যন্ত আর কোনও গোল হয়নি। ১৯৫৪-র পর এই প্রথম গ্রুপ পর্বে পরপর দুটি ম্যাচ জিতল উরুগুয়ে। ম্যাচ জিতলেও দলের পারফরম্যান্সে খুব একটা খুশি হতে পারবেন না উরুগুয়ে সমর্থকরা। কারণ, প্রথম ম্যাচে পাঁচ গোল খাওয়া সৌদি এদিন বেশ বেগ দিল উরুগুয়েকে।

এই হারের সঙ্গে সঙ্গেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল সৌদি আরব। সেই সঙ্গে মহম্মদ সালাহ-র সৌদি আরবের টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাওয়াও নিশ্চিত হয়ে গেল। অন্যদিকে, রাশিয়ার সঙ্গে সঙ্গে নক আউটে চলে গেল উরুগুয়ে। আগামী ২৫ জুন রাশিয়া-উরুগুয়ে ম্যাচেই ঠিক হবে গ্রুপে শীর্ষস্থান দখল করছে কোন দল।

 

২০ জুন, ২০১৮ ২৩:১৯:১৯