ছন্দে থাকা রোনাল্ডোকে নিয়ে আতঙ্কে ভুগছে মরক্কো
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো
স্পেনের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করে তিনি দলকে সমতায় ফিরিয়ে এনেছিলেন। এরকমই আর একটা পারফরম্যান্স করতে পারলে মরক্কো খুব একটা বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না পর্তুগালের সামনে। বুধবার এই দুই দল বিশ্বকাপের তাদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামছে। বিশ্বকাপে এই দুই দলের মুখোমুখি লড়াই আর মাত্র একবারই হয়েছিল। ১৯৮৬-তে সেই লড়াইয়ে মরক্কো ৩-১ গোলে হারিয়েছিল পর্তুগালকে।

তবে দিন এখন বদলে গিয়েছে। আর পর্তুগাল দলে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো বলে এমন একজন মহাতারকা আছেন, যিনি একাই ম্যাচের রং বদলে দিতে পারেন। সোচিতে স্পেনের বিরুদ্ধে রোনাল্ডো যে হ্যাটট্রিক করেছিলেন, সেটা তাঁর কেরিয়ারের ৫১তম হ্যাটট্রিক। বিশ্বকাপের ইতিহাসেও এই নিয়ে ৫১টি হ্যাটট্রিকের ঘটনা লিপিবদ্ধ হয়ে থাকে। তার থেকেও বড় কথা রোনাল্ডো হলেন চতুর্থ ফুটবলার, যিনি চারটি বিশ্বকাপে নেমে গোল করেছেন। তবে মরক্কো ম্যাচে খেলতে নামার আগে রোনাল্ডো বলেছেন, “খুব ভাল লাগছে। নিজের নামের পাশে আর একটা রেকর্ড যুক্ত হল। তবে আমার কাছে সব থেকে বড় ব্যাপার হল এই যে, আমরা ফেভারিট দলগুলির বিরুদ্ধে কেমন খেলছি।” ২০১৬-তে পর্তুগাল ইউরোপ সেরা হয়েছিল। কিন্তু তারপরও রাশিয়াতে তাদের সেভাবে ফেভরিট বলা হচ্ছে না। কিন্তু বুধবার মরক্কোকে হারিয়ে শেষ ১৬-তে যাওয়া নিশ্চিত করতে পারলে ছবিটা বদলে যাবে।

পর্তুগালের স্ট্রাইকার আন্দ্রে সিলভা বলেছেন, “আমরা মরক্কোর থেকে শক্তিশালী দল। কিন্তু তাই বলে এটা বলছি না যে, ম্যাচটা খুব সহজ হবে। বিশ্বকাপে সব ম্যাচই কঠিন। আমরা কাউকে খাটো করে দেখতে চাই না।”মরক্কো কিন্তু মূলপর্বে উঠে আসার লড়াইয়ে একটা গোলও খায়নি। এটা বিশাল ব্যাপার। আর দুই দশক বাদে তারা বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছে। এই সুযোগটাকে তারা কাজে লাগাতে চায়। তবে ইরানের বিরুদ্ধে আত্মঘাতী গোলে হার মানতে হয়েছিল আফ্রিকার এই দলটিকে। হার্ভ রেনার্দের দলকে যে বুধবার কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়েছে, সেটা সবাই জানে। তবে মিডফিল্ডার ফজর বলছেন, “আমরা আর্জেন্টিনা ম্যাচে যা হয়েছিল, সেরকমই কিছু করতে চাই। আর আমরাও তো ওদের মতো দুটো হাত, দুটো পা সম্বলিত মানুষই।” আর্জেন্টিনাকে ওই ম্যাচে আটকে দিয়েছিল আইসল্যান্ড। এবার এমনই কিছু করতে চায় মরক্কো। কোচ রেনার্দও বলেছেন, “আমরা একটা লড়াই হেরেছি। সবটা নয়। এখনও আমাদের সামনে সুযোগ আছে। কুড়ি বছর ধরে মরক্কোর লোকেরা এর জন্য অপেক্ষা করে আছেন। তাঁদের হতাশ করতে চাই না।”

 

১৯ জুন, ২০১৮ ২৩:৫৪:৪২