টাইগারদের ৫ উইকেটে ঐতিহাসিক জয়
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। উপমহাদেশের এটিই সবচেয়ে বড় রান তাড়া করে জয় পাওয়া ম্যাচ যা ছোট ফরম্যাটের ইতিহাসে চতুর্থ সর্বোচ্চ। শনিবার টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যেখানে লঙ্কানদের দেওয়া ২১৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইনিংসের দুই বল বাকি থাকতে মুশফিকুর রহিমের অসাধারণ ব্যাটিংয়ে জয় পায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ৩৫ বলে ৫টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৭২ রান করে অপরাজিত থেকে দলকে জেতান মুশফিক। জিতেছেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কারও।

ইনিংসের শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলতে থাকা নুয়ান প্রদিপের বলে ষষ্ঠ ওভারের পঞ্চম বলে এলবির ফাঁদে পড়েন লিটন দাস। ১৯ বলে ২টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৪৩ করেন এই ডানহাতি। 

দশম ওভারের তৃতীয় বলে থিসারা পেরেরার কট এন্ড বোল্ডের শিকার হন তামিম ইকবাল। ২৯ বলে ৬টি চার ও এক ছক্কায় ৪৭ করেন তিনি। ১৫তম ওভারে প্রদিপের দ্বিতীয় শিকার হন সৌম্য। ২২ বলে দুটি চার ও এক ছক্কায় ২৪ করেন তিনি। সাব্বির শূন্য রানে বিদায় নেন।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করা লঙ্কানরা নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ২১৪ রান সংগ্রহ করেছে।

ফিল্ডিংয়ে নেমে দলীয় পঞ্চম ওভারের তৃতীয় বলে দাসুন গুনাথিলাকাকে সরাসরি বোল্ড করেন মুস্তাফিজুর রহমান। পরে ১৪তম ওভারে জোড়া আঘাত করেন মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ। ৫৭ রান করা কুশাল মেন্ডিস ও শূন্য রানে শানাকাকে তুলে নেন তিনি।

১৫তম ওভারের শেষ বলে তাসকিন আহমেদ বিদায় করেন দিনেশ চান্দিমালকে। প্রথম দুই ওভারে ৩৩ রান দেওয়া এই পেসার তৃতীয় ওভারে ৭ রানের খরচায় উইকেটটি তুলে নেন। 

ইনিংসের শেষ ওভারে দলীয় সর্বোচ্চ ৭৪ রান করা কুশাল পেরেরাকে মুশফিকুর রহিমের ক্যাচ বানান মুস্তাফিজ। ৪৮ বলে ৮ চার ও দুই ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান পেরেরা। পরে ওভারের চতুর্থ বলে নতুন ব্যাটসম্যান থিসারা পেরেরাও মুস্তাফিজের শিকার হন। উপল থারাঙ্গা ৩২ ও জীবন মেন্ডিস ৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

 

 

 

 

১১ মার্চ, ২০১৮ ০৮:১১:১৭