ঢাকাকে হারিয়ে শেষ চারে কুমিল্লা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
দুই হেভিওয়েট দলের লড়াই। গ্যালারি ভরবে আগেই জানা ছিল। গ্যালারিও ভরল, ক্রিকেটাররাও উপহার দিলেন রোমাঞ্চকর ম্যাচ। যে দল জিতবে তারাই চলে যাবে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে পাশাপাশি নিশ্চিত হবে শেষ চার। এবারের আসরে প্রথম দল হিসেবে শেষ চারে জায়গা করে নেয় খুলনা টাইটানস। এ ম্যাচ দিয়ে শেষ হলো চট্টগ্রাম পর্বের ম্যাচ। 

কুমিল্লা ভিক্টোনিয়ানস ও ঢাকা ডায়নামাইটস ম্যাচকে ঘিরে ছিল উত্তেজনা। কারণ প্রথম দেখায় ঢাকাকে হারায় কুমিল্লা। তাই ঢাকার জন্য ম্যাচটি ছিল প্রতিশোধ নেয়ার। কিন্তু পারল না বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। দুইবারের মুখোমুখিতে দুইবারই সাকিবের হাসি ম্লান করে জয়োৎসব করল তামিমের কুমিল্লা। 

নয় ম্যাচ খেলে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে সবার উপরে কুমিল্লা। ১০ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে ঢাকা।

বুধবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে কুমিল্লার দেয়া ১৬৮ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান সংগ্রহ করে ঢাকা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৯ রান করেন জো ডেনলি। 

ঢাকা ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই প্রথম উইকেট হারায়। মালিকের বলে স্ট্যাম্পিং হয়ে ফিরে যান এভিন লুইস (৬)। দলীয় ৪৬ রানে রান আউট হয়ে ফিরে যান সাদমান ইসলাম (৯)। দশম ওভারে ব্রাভোর বলে তামিমের হাতে তালুবন্দি হন সাকিব (৭)। দলীয় ৭৩ রানে নিজের বলে রিটার্ন ক্যাচ নিয়ে নারিনকে (৫) ফেরান ব্রাভো।

১৩তম ওভারে ডেনলিকে (৫৯) বোল্ড করেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। তার আগে ৩৯ বলে করেন ৪৯ রান। ১৭তম ওভারে রান আউট হন মোসাদ্দেক (১৭)। ১৮তম ওভারে সাজঘরে ফেরেন পোলার্ড।(২৭)। ২১ বল খেলে ২৭ রান করেন তিনি। শেষ ওভারে জহুরুলকে (১৭) বোল্ড করেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন।

কুমিল্লার পক্ষে ডোয়াইন ব্রাভো ৩টি, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ২টি ও শোয়েব মালিক ১টি করে উইকেট নেন।  

এর আগে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে কুমিল্লাকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন তামিম। রানের চাকা থামাতে ঢাকার দরকার ছিল ব্রেক থ্রু। সাকিব নিজ কাঁধে দায়িত্ব তুলে নেন। সাকিবের করা অষ্টম ওভারের দ্বিতীয় বলে ডিপ স্কয়ার লেগে তুলে মারতে গিয়ে তামিম (৩৭) ক্যাচ দেন মোসাদ্দেকের হাতে।

তামিম আউট হওয়ার পর রান রেট নেমে যায় ৭ এর নিচে। বিশেষ করে ইমরুল ও লিটন যখন ব্যাট করছিলেন রানের চাকা অনেকটাই থমকে ছিল। দুজন তৃতীয় উইকেট জুটিতে যোগ করে ২৪ বলে ২৯ রান।

সাকিবের বলে স্ট্যাম্পড হওয়ার আগে লিটন ৩০ বলে ৩৪ রান করেন। তার আউটে ক্রিজে আসেন স্যামুয়েলস। ১৯তম ওভারে কেভিন কুপারের বলে লং অফে ডেনলির হাতে ক্যাচ দেয়ার আগে স্যামুয়েলস করেন ৩৯ রান। মূলত তার ব্যাটিংয়ে শেষ দিকে বড় স্কোর পায় কুমিল্লা। ৫ চার ও ২টি ছক্কা হাঁকান ক্যারিবীয়ন তারকা। শোয়েব মালিক ৪ বলে ৯, হাসান আলী ২ বলে ৮, ব্রাভো ৩ বলে ৬ রান করলে ১৬৭ রানের পুঁজি পায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস।

ঢাকার পক্ষে কেভিন কুপার ৩টি ও সাকিব আল হাসান ২টি উইকেট লাভ করেন।

ফল: ১২ রানে জয়ী ‍কুমিল্লা ভিক্টোনিয়ানস।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: ডোয়াইন ব্রাভো (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স)।

২৯ নভেম্বর, ২০১৭ ২৩:২৮:১১