চিয়ারলির্ডাসদের পছন্দ হলেই দর্শকরা যেতে পারবেন ডেটিংয়ে!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
বিতর্কের মুখে কানাডার আইস হকি লিগ। গত মাসের ২০ তারিখ থেকে কানাডর এডমন্টনে শুরু হয়েছে শহরের আইস হকির ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ। আট দলের এই টুর্নামেন্ট দর্শকদের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে নানা ব্যবস্থা করা হয়েছে। আসলে এখন এই শহরে জাঁকিয়ে ঠান্ডা পড়েছে। সন্ধ্যার পর ঘর থেকে বের হওয়ার উপায় নেই। তুষারপাত হচ্ছে খুব। দিনের বেলাতেই তাপামত্রা হিমাঙ্কের ৬ ডিগ্রি নেমে যাচ্ছে। তাই দর্শকদের এই প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যে রিং মুখি করতে নানা আকর্ষণীয় ব্যবস্থা করে নেওয়া হয়েছে। আর আকর্ষণীয় করে তুলতে একটা যা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তাতেই বিতর্ক।

একটা টুর্নামেন্টকে আকর্ষণীয় করে তুলতে বাকিরা যা করে সেগুলির বেশিরভাগই করেছে এডমন্ট আইশ হকি লিগ কর্তৃপক্ষ। জমকালো উদ্বোধন, নামী বিদেশী খেলোয়াড়দের নিয়ে আসা হয়েছে। দর্শক স্বাচ্ছন্দ্যের সেরা চেষ্টাও করা হয়েছে। সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে ‘চিয়ার কমফর্ট’ নামের এক জিনিসকে। ‘চিয়ার কমফর্ট’ হল এমন এক ধরনের প্রিমিয়াম টিকিট, যা কাটলে আমাদের ক্লাব হাউসের মতই ভাল করে ম্যাচ দেখা যাবে, সঙ্গে এই বক্সে বসে কোনও চিয়ারলির্ডাসকে পছন্দ হলে তাকে ডেট করা যাবে। অবশ্য এর জন্য সেই চিয়ারলিডার্সকে অতিরিক্ত অর্থ দিতে হবে। বেশ কয়েকদিন ধরেই ম্যাচ শেষে সুন্দরী চিয়ারলিডার্সরা ডেটে যাচ্ছেন। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোডও হচ্ছে।

এই চিয়ার কমফর্ট নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। অভিযোগ চিয়ারলিডার্সদের নামে দেহ ব্যবসায়ীদের নামিয়ে এই আইস হকি লিগকে দেহ ব্যবসার কেন্দ্র বানানো হয়েছে। চিয়ার কমফর্টে টিকিটের চাহিদও বেশ। মাত্র ৫০জনের বসার ব্যবস্থা রয়েছে এই জোনে। চিয়ারলির্ডাস হিসেবে আছেন মোট ১৫ জন।

চিয়ার কমফর্টে টিকিট কাটা এক দর্শক বলছেন, যেভাবে জাঁকিয়ে ঠান্ডা পড়ছে, তাতে এই কমফর্ট বক্সটার দরকার ছিল। সঙ্গে তাঁর প্রশংসা দর্শকদের জন্য এটা খুব ভাল উদ্যোগ। অবশ্য সমালোচনাই হচ্ছে বেশি। খেলার মাঠে এভাবে যৌনতাকে খোলাখুলি প্রবেশ করতে দেওয়ার অপরাধে টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিক্ষোভও হয়েছে। টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষের প্রধান নিনজা বুশার্ড বলছেন, ”জানি না এটা নিয়ে এত বিতর্কের কী আছে। আমি তো বলব একজন দর্শককে খেলায় আরও এনগেজ রাখতে এটা খুব ভাল উদ্যোগ।”

প্রসঙ্গত, কানাডায় আইস হকি সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। ভারতে যেমন ক্রিকেটকে নিয়ে উন্মাদনা, কানাডায় তেমন আইস হকি।

আইস হকি হল একটি অতি পরিচিত দলগত সংযোগ ক্রীড়া, যা বরফের উপর খেলা হয়। এ খেলায় একটি আইস রিঙ্কের মধ্যে দু’দল স্কেটার তাদের স্টিক দিয়ে আঘাত করে ভালক্যানাইজড রাবার বল তাদের প্রতিপক্ষের নেটে পাঠানোর চেষ্টা করে। আইস হকির প্রত্যেকটি দল ছয়জন খেলোয়াড় নিয়ে গঠিত হয়, একজন গোলটেন্ডার এবং অন্য পাঁচজন খেলোয়াড়, যারা বরফের উপর স্কেটিং করে (স্কেটের উপর ভর দিয়ে উপর নিচে দৌড়ানো) পাককে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে প্রতিপক্ষ দলের বিরুদ্ধে গোল করে স্কোর করার চেষ্টা করে।

একটি দ্রুত বিন্যস্ত, শারীরিক ক্রীড়া হিসাবে আইস হকি উত্তর আমেরিকা (বিশেষ করে কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাঞ্চলে) এবং উত্তর ও পশ্চিম ইউরোপে বেশ জনপ্রিয়। আইস হকি কানাডার জাতীয় খেলা, যেখানে এ খেলা অগাধ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। উত্তর আমেরিকায় জাতীয় হকি লীগহল পুরুষদের সর্ববৃহৎ ও সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রতিযোগিতা। কন্টিনেন্টাল হকি লীগ হল রাশিয়ার সর্ববৃহৎ এবং পূর্ব ইউরোপের অন্যতম লীগ। আন্তর্জাতিক আইস হকি ফেডারেশন হল আইস হকি নিয়ন্ত্রণকারী সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠান। আন্তর্জাতিক আইস হকি ফেডারেশন আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন ও বিশ্ব র্যাঙ্কিং নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। বর্তমানে এ ফেডারেশনের সদস্য রাষ্ট্রের সংখ্যা ৭৪।

১৬ নভেম্বর, ২০১৭ ০৬:৪০:৩৫