বাংলাদেশে ক্রিকেট এখন সকলের স্বপ্ন
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
বাংলাদেশের সফল প্রাক্তন অধিনায়ক এবং সদ্য জাতীয় নির্বাচক থাকা হাবিবুল বাশার
ক্যারিবিয়ান দ্বীপপূঞ্জে এমন একটা সময়ে তিনি টেস্ট সেঞ্চুরি করেছিলেন, যখন বাংলাদেশ ক্রিকেট সম্পর্কে কারও কোনও শ্রদ্ধা তৈরিই হয়নি। বলা হয়, প্রাক্তন কোচ ডাভ হোয়াটমোরের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অধিনায়ক হিসেবে তিনিই প্রথম পেশাদারিত্বের ছোঁয়া আনেন। প্রথম লড়াই করতে শেখান, প্রথম বিদেশের মাটিতে ভাল খেলার মর্ম বুঝতে শেখান। তাঁদের গোটা দেশের কাছে স্বপ্নের সেমিফাইনাল বৃহস্পতিবার। তার আগে বাংলাদেশের সফল প্রাক্তন অধিনায়ক এবং সদ্য জাতীয় নির্বাচক থাকা হাবিবুল বাশার ফোনে কথা বললেন আনন্দবাজার-এর সঙ্গে।

প্রশ্ন: সেমিফাইনালে কী হবে মনে হচ্ছে? কাদের এগিয়ে রাখবেন?

হাবিবুল বাশার: ফেভারিট নিশ্চয়ই ভারত। কাগজে-কলমে আপনারাই এগিয়ে। তবে আমাদের দল এখন টগবগে ক্রিকেট খেলছে। নিউজিল্যান্ডকে দারুণ হারিয়েছে। আমাদের ক্রিকেট ইতিহাসে অন্যতম সেরা জয় সেটা। তাই আমি বলব, বাংলাদেশেরও এ বার জেতার সম্ভাবনা বেশ ভালই। আমার মনে হয়, খুব ভাল একটা ম্যাচ হবে। যারা ভাল ক্রিকেট খেলবে, তারাই জিতবে। বাংলাদেশি হিসেবে অবশ্য চাইব, আমাদের দল জিতুক আর ইতিহাস তৈরি করুক বার্মিংহামে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের জন্য এটা কত বড় ম্যাচ মনে হয়?

বাশার: বিশাল ম্যাচ। আমরা এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলেছি। নিজেদের দেশে বড় সিরিজ জিতেছি। ভারতকেও নিজেদের দেশে ওয়ান ডে সিরিজে হারিয়েছে আমাদের ছেলেরা। কিন্তু কখনও বিশ্ব মানের কোনও টুর্নামেন্টে আমরা সেমিফাইনাল খেলিনি। ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিলাম। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে যাই ভারতের কাছে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের ক্রিকেটে এই জাগরণের কারণ কী?

বাশার: গোটা দেশে ক্রিকেট নিয়ে উন্মাদনার পরিমাণ অনেক বেড়ে গিয়েছে। বাংলাদেশে এখন সকলে ক্রিকেট খেলতে চায়। বাংলাদেশে ক্রিকেট এখন একটা স্বপ্ন। আগে আমাদের দেশে একশো জন ক্রিকেট খেলত। এখন খেলে দশ হাজার ছেলে। জাতীয় খেলার পর্যায়ে চলে গিয়েছে। আমি বলব, গোটা দেশে ক্রিকেটের এমন জনপ্রিয় ভাবে ছড়িয়ে পড়াটাই প্রধান কারণ। এই জনজোয়ারের ফলেই দারুণ দারুণ প্রতিভা রোজ নেটে আবিষ্কৃত হচ্ছে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সাম্প্রতিক সাফল্যের পিছনে আর কী কারণ থাকতে পারে বলে মনে হয়?

বাশার: কিছুটা ভাগ্যও আছে আমি বলব। কারণ, একসঙ্গে আমরা দারুণ কিছু ক্রিকেটার পেয়ে গিয়েছি। একটা গোল্ডেন টিম পাওয়াটা কিছুটা ভাগ্যেরও ব্যাপার। সব দেশের ক্ষেত্রেই এমন হয়েছে। ভারতে বিভিন্ন প্রজন্মে ভাল ক্রিকেটারেরা আসতেই থাকে। সব দেশে তো আর সেটা হয় না। তাদের তাকিয়ে থাকতে হয় কখন সোনার সেই টিম আসবে। আমার মনে হয়, বাংলাদেশ সেই সোনার টিমটা এখন পেয়েছে।

প্রশ্ন: দু’দলের কোন কোন ক্রিকেটারেরা সেমিফাইনালের ভাগ্য গড়ে দিতে পারেন?

বাশার: দু’একজন ভাগ্য গড়ে দিতে পারবে বলে মনে হয় না। টিম হিসেবে যারা ভাল খেলবে, তারাই জিতবে। এত বড় একটা ম্যাচ, দলগত ভাবে ভাল খেলতে না পারলে জেতা খুব কঠিন।

প্রশ্ন: তবু যদি কাউকে বেছে নিতে বলা হয়?

বাশার: বাংলাদেশের দিকে তামিম আর শাকিব। দু’জনেই বড় পারফর্মার। বড় ম্যাচের পারফর্মার। ওরা কী রকম করে, তার ওপর অনেক কিছু নির্ভর করবে।

প্রশ্ন: আর ভারতের দিকে?

বাশার: বিরাট কোহালি তো দারুণ করছেই। সারা ক্রিকেটবিশ্বই সেটা জানে। কিন্তু আমি রোহিত শর্মার ব্যাটিংয়ের খুব বড় ফ্যান। রোহিত ওপেন করতে নেমে বড় ইনিংস খেলে দিতে পারে। বিশেষ করে ওয়ান ডে-তে রোহিত পার্থক্য গড়ে দেওয়ার মতো ব্যাটসম্যান।

প্রশ্ন: ম্যাচটা কি ভারতীয় ব্যাটিং বনাম মুস্তাফিজুরদের বোলিং?

বাশার: না, না। তা কী করে হয়? ভারতের এখন বোলিংও যথেষ্ট ভাল। দারুণ পেস বোলিং বিভাগ। উমেশ যাদব, ভুবনেশ্বর কুমার, যশপ্রীত বুমরা সকলে ভাল বল করছে। সঙ্গে অশ্বিন, জাডেজার স্পিন। আমি তো বলব, এই টুর্নামেন্টে ভারতের বোলিং আক্রমণ সব চেয়ে ভাল করছে। আবার আমাদের পেস বোলাররাও ভাল করছে। ম্যাচটাকে তাই দু’টো বিভাগের লড়াই হিসেবে তুলে ধরাটা ঠিক হবে না। ম্যাচটা ভারত বনাম বাংলাদেশ দু’টো দলের। যারা দলগত ভাবে ভাল খেলবে, তারাই জিতবে।

প্রশ্ন: আপনি তো ইংল্যান্ডে ছিলেন। এখন বাংলাদেশে ফিরে গিয়েছেন। কেমন উন্মাদনা ম্যাচ নিয়ে?

বাশার: সাংঘাতিক উন্মাদনা। বললাম না, ক্রিকেট এখন বাংলাদেশে দারুণ জনপ্রিয় খেলা। প্রচুর লোকে দেখে। আমার কাছে তো বার্মিংহাম থেকেও ফোন আসছে অনেকের যে, টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। এখানেও সকলের চোখ থাকবে টিভির পর্দায়। - আনন্দবাজার পত্রিকা

১৪ জুন, ২০১৭ ১০:২৮:১২