আইন ভঙ্গের অভিযোগ, ইলিয়াস কাঞ্চন ফেঁসে যাচ্ছেন
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
অস্ত্র-গুলি নিয়ে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের বিমানবন্দরের স্ক্যানিং মেশিন পার হওয়ার ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি তাদের প্রতিবেদন দাখিল করেছে। সিভিল এভিয়েশন (সিএবি) চেয়ারম্যানের দপ্তরে দাখিল এ প্রতিবেদনে নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধে আনা হয়েছে আইন ভঙ্গের অভিযোগ।

পাশাপাশি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী তল্লাশির ক্ষেত্রে বেশ কিছু অব্যবস্থাপনার চিত্র তুলে ধরে ১৩ দফা সুপারিশ দেওয়া হয়েছে। 

গত ৫ মার্চ ঢাকা থেকে বিমানযোগে চট্টগ্রামে যান নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)-এর চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন। তবে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই একটি নাইন এমএম পিস্তল ও ১০ রাউন্ড গুলি নিয়ে তিনি শাহজালালের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে প্রবেশ করেন। 

পরে নভো এয়ারের বুকিং কাউন্টারে গিয়ে চিত্রনায়ক জানান, তার সঙ্গে পিস্তল ও গুলি আছে; যা অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের প্রথম গেটের স্ক্যানারে ধরা পড়েনি। পাশাপাশি এ ঘটনায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন।

তবে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) দাবি, প্রথম স্ক্যানের সময় অস্ত্র থাকার কথা বলেননি ইলিয়াস কাঞ্চন। দ্বিতীয় স্ক্যানের আগেও জানাননি। স্ক্যানের সময় অস্ত্রটি মেশিনে ধরা পড়ার পরই তা স্বীকার করেন। এতে তিনি অস্ত্র ব্যবহারকারী হিসেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আগ্নেয়াস্ত্র লাইসেন্স প্রদান, নবায়ন ও ব্যবহার বিধিমালা-২০১৬ বিধি-বিধান অনুসরণ করেননি।

রাষ্ট্রীয় বিধি-বিধান অনুযায়ী, কোনো যাত্রীর সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র থাকলে তা বিমানবন্দরের স্ক্যানিং চেক পয়েন্টে প্রবেশ করার আগেই ঘোষণা দিতে হয়। কিন্তু ইলিয়াস কাঞ্চন তার ব্যাগে অস্ত্র বহনের বিষয়টি আগে ঘোষণা দেননি। যদিও সেদিনের ঘটনায় ইলিয়াস কাঞ্চনকে গ্রেপ্তার না করে পিস্তল বহনের নিয়মগুলো ব্রিফ করে অস্ত্র-গুলিসহ যেতে দেওয়া হয়।

১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ১১:২৮:১৫