অলৌকিক ঘটনা, পীরের দানবক্স পাহারা দিচ্ছে বিষধর সাপ!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
বাস্তব কল্পনার চাইতেও চমকপ্রদ৷ প্রবাদটি যে কতটা সত্য তা ফের প্রমাণ করল বাংলাদেশের একটি ঘটনা৷ তস্করদের হাত থেকে ধর্মস্থানের রক্ষায় ত্রাতা হয়ে নেমেছে একটি সাপ৷ ঘটনাটি দক্ষিণ জনপদ বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নে আউলিয়াপুর গ্রামের৷ সেখানে বিখ্যাত দরবার শরিফের দানবাক্স পাহারা দিতে দেখা গিয়েছে এক বিশাল সাপকে। খবরটি চাউর হতেই দলে দলে ধর্মপ্রাণ মানুষ জমা হয়েছেন সেখানে৷ 

সাধারণত হিন্দু দেবালয়গুলিতে সোনাদানা পাহারা দিচ্ছে সাপ বলে শোনা যায়৷ তবে এবার উলিয়ার দরবার শরিফে একটি সাপের এহেন কাণ্ডে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়৷ স্থানীয়দের দাবি, টাকা চুরি রুখতেই অলৌকিকভাবে সাপটি দানবাক্স পাহারা দিচ্ছে। সোমবার দুপুর ১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সাপটি তালা-সহ দান বাক্সটি জড়িয়ে থাকে। ওই সময় কেউ দানবাক্সের দিকে এগিয়ে গেলে ছোবল মারার উদ্দেশ্যে সাপটিকে আক্রমণ করতে দেখা গিয়েছে। তবে মঙ্গলবার থেকে আর সাপটিকে দেখা যায়নি। স্থানীয়রা জানান, বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কের পাশেই বার আউলিয়ার দরবার শরিফ। প্রতিদিন এ পথে যাতায়াতকারীরা ছাড়াও স্থানীয় ও দূর-দূরান্ত থেকে অসংখ্য মানুষ দরবারের দানবাক্সে অর্থ দান করেন।

তবে অন্যান্য ধর্মস্থানের মতোই চোরেদের হাত থেকে রেহাই পায়নি আউলিয়ার দরবার শরিফও৷ গত বছর তিন থেকে চারবার দরবারের দানবাক্সের তালার নকল চাবি তৈরি করে অর্থ চুরি করা হয়েছে। দরবার শরিফের ওয়াকফ স্টেটের প্রতিনিধি মৌলানা হেলালুজ্জামান জানান, কয়েক বছর ধরে স্থানীয় একটি চক্র দরবার শরিফের দানবাক্সের তালার নকল চাবি তৈরি করে অর্থ চুরি করছে। গত বছর একাধিকবার হানা দেয় চোরেরা। তাঁর দাবি, চুরি ঠেকাতেই এমন অলৌকিক ঘটনা ঘটেছে। যাতে ওই অসাধু চক্রটি আর অর্থ চুরির কথা চিন্তাও না করে তাই দানবাক্স ঘিরে রেখেছে সাপ।    

২১ মার্চ, ২০১৯ ০৯:১৮:১৮