রাজধানীতে হিজড়াদের দুপক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২০
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে হিজড়াদের (তৃতীয় লিংঙ্গ) দুপক্ষের সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। শনিবার রাত ১০ টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এর আগেও শনিবার সন্ধায় মিরপুর মডেল থানার সামনেও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মিরপুর এলাকায় সোনালী গ্রুপ চাঁদা আদায় করতে যায়। এ সময় ২০-২৫টি কাপড়ের পর্দা নিয়ে পালানোর সময় সোনালীকে আটক করে জনগণ। পরে মিরপুর গ্রুপের রাখি সর্দারকে স্থানীয়রা ফোন করলে তাকে নিয়ে থানায় যায় রাখি।

পরে সেখানে মিরপুর মডেল থানার সামনে রাখি ও সোনালী গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এরপর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে উভয়পক্ষের লোক চিকিৎসা নিতে আসলে হাসপাতালের নিচতলায় দুপক্ষের মধ্যে আবার ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে। এতে দুপক্ষের ২০ জন আহত হয়। পরে শের-ই-বাংলানগর থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ হিজড়া সরদার রাখি বলেন, ‘আমরা ডিআইজি হাবিবুর রহমানের তত্ত্বাবধানে উত্তরণ ফাউন্ডেশনে কাজ করি। সোনালী গ্রুপের লোকজন আমার এলাকায় এসে জানালার পর্দা নিয়ে পালানোর সময় জনগণ তাদের আটক করে। আমাকে খবর দিলে আমি ঘটনাস্থলে যেয়ে সোনালীকে নিয়ে থানায় আসি। খবর পেয়ে সোনালী গ্রুপের লোকজন আমার গ্রুপের লোকজনের ওপর হামলা চালায়।’

রাখি আরও জানান, সোনালী গ্রুপের লোকজন মাদক কেনাবেচা ও মোবাইল ছিনতাই করে।

সোনালী গ্রুপের পলাশী বলেন, ‘আমাদের সরদার সোনালীকে রাখি হিজড়া কিডন্যাপ করে। পরে আমরা খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করি। সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে সেখানে তারা আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে আমাদের ১৫-২০ জন আহত হয়।’

১১ মার্চ, ২০১৯ ০৯:১১:৩৫