বদি আছেন বদি নেই
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
টেকনাফের পাইলট স্কুল মাঠে ইয়াবা আত্মসমর্পণের মঞ্চ প্রস্তুত। দর্শক সারি কানায় কানায় পূর্ণ। সকাল ১০টার দিকে অনুষ্ঠানস্থলে আসতে থাকেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। দর্শক সারি আর ক্যামেরার চোখ তখন অতিথিদের দিকে। অনেকেই চুপিচুপি আলোচনা করছেন, আলোচিত সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি কি আসবেন?

যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, অনুষ্ঠানে বদিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। তবুও শেষ মুহূর্তে বদি আসতে পারেন অনুষ্ঠানস্থালে এমন গুঞ্জনও ছিল। মঞ্চে জায়গা না মিললেও দর্শক সারিতে ঠাঁই নিতে পারেন তিনি। বদির দেখা অবশ্য মেলেনি। তবে বদির অস্তিত্ব জানান দিয়েছেন তার স্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদ শাহীন আক্তার।

আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দেন তিনি। টেকনাফকে ইয়াবামুক্ত করার ঘোষণাও দেন এই জনপ্রতিনিধি। সমালোচনা ঠেকাতে বদিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশের শীর্ষ পর্যায় থেকে। এমন প্রেক্ষাপটে গত শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে কক্সবাজার থেকে টেকনাফের নিজ বাসায় পৌঁছান তিনি। সূত্র জানায়, স্ত্রী বেরিয়ে যাওয়ার কিছু সময় পর বাসা থেকে বের হন।

আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানস্থলের খুব কাছে টেকনাফ জিরো পয়েন্টের একটি বাসায় পৌঁছেন বদি। সেখানে বসেই অনুষ্ঠানের বক্তব্য শোনেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বদির স্ত্রী শাহীন আক্তার। লিখিত বক্তব্য দেন তিনি।

কক্সবাজার ৪ আসনের সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার বলেন, মাছ ধরে জীবিকা অর্জন করতে না পেরে ইয়াবা ব্যবসা করছে এ এলাকার কিছু মানুষ। যদি তাদের মাছ ধরার অনুমতি দেওয়া হয়, তা হলে তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে। শাহীন আক্তারের বক্তব্যের সময় করতালি দিয়ে তাকে সমর্থন জানাতে দেখা যায় উপস্থিত দর্শকদের অনেককে। -আমাদের সময়

 

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১০:০৯:১৮