বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় পাহারা দিচ্ছে ছাত্রদল
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের সামনে আজও অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীদের সমর্থকরা। ভেতর থেকে মাইকিং করে কার্যক্রম বন্ধের ঘোষণা দিলেও তাদের সরানো যাচ্ছে না। জনপ্রিয় নেতাদের বাদ দিয়ে অযোগ্য প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়ার অভিযোগ করেন তারা। পরিস্থিতি সামাল দিতে তিতুমীর কলেজসহ আশপাশের বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ছাত্রদলের কর্মীরা পাল্টা অবস্থান নিয়েছে। স্লোগান, ক্ষোভ, উত্তেজনা আর বিক্ষোভে দ্বিতীয় দিনের মতো উত্তপ্ত রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়।

রোববার (৯ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীদের সমর্থকেরা জড়ো হতে থাকেন দলীয় চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ের সামনে। এ সময় তারা দলের ত্যাগী ও জনপ্রিয় নেতাদের বাদ দিয়ে অযোগ্য প্রার্থীদের মনোনয়ন দেয়ার অভিযোগ তোলেন। তাদের একজন বলেন, ‘যাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে তার একজন এজেন্ট দেওয়ারও যোগ্যতা নেই।’

পরিস্থিতি সামাল দিতে কার্যালয়ের ভেতর থেকে ঘোষণা দেয়া হয় রোববার প্রার্থীদের মনোনয়ন বিষয়ে এখানে কোনো কার্যক্রম নেই। তবে, ঘোষণা দেয়ার পর মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীদের বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা আরো ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে।

এদিকে, কুমিল্লা-৪ আসনে বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থী মঞ্জুরুল আহসান মুন্সি এবং মুন্সিগঞ্জ-১ আসনের বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর সমর্থকদের মধ্যে কিছু সময়ের জন্য উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দিতে তিতুমীর কলেজসহ রাজধানীর বেশ কয়েকটি কলেজের ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের নির্দেশে গুলশান কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন। এ সময় তারা জানান, বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যাতে সৃষ্টি না হয় সেজন্য তারা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়েছেন।

নির্বাচনে বিএনপির দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে শনিবার হামলা ও ভাঙচুর চালায় বঞ্চিত প্রার্থীর সমর্থকরা। এদিকে, শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনেও বিক্ষোভ ও কিছু সময়ের জন্য কার্যালয়ের মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন বঞ্চিত প্রার্থীর সমর্থকরা।

০৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:০৯:০৫