পুলিশের গাড়িতে আগুন দেওয়া সেই যুবক ‘শনাক্ত’
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ চলাকালে পুলিশের গাড়িতে আগুন দেওয়া ও গাড়ির ওপরে উঠে লাফানো সেই দুই যুবককে শনাক্ত করার দাবি করেছে পুলিশ। পুলিশের মতিঝিল বিভাগের সহকারী কমিশনার মিশু বিশ্বাস বৃহস্পতিবার সকালে ওই যুবকদের শনাক্তের কথা জানান।

তিনি বলেন, পুলিশের গাড়িতে যে যুবক আগুন দিয়েছেন, তার নাম শাহজালাল খন্দকার। তিনি পল্টন থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য। একই ঘটনার সময় পুলিশের গাড়ির ওপর যে যুবককে লাফাতে দেখা গেছে সেই যুবকও ছাত্রদলের কর্মী। ওই দুজনকে এখনও গ্রেফতার করা যায়নি বলেও জানিয়েছে পল্টন থানা পুলিশ।

এর আগে বুধবার দিনগত রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের লাইভ প্রোগ্রামে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি সমর্থকদের সংঘর্ষ ও গাড়ি পোড়ানোর ঘটনায় পল্টন থানায় তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিতদের মধ্য থেকে জড়িত সন্দেহে ৩০ জনকে শনাক্ত করার কথা জানান তিনি।

পল্টন থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান জানিয়েছেন, গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ, রাস্তা অবরোধ, পুলিশকে মারধর ও সরকারি কাজে বাধার অভিযোগে এসব মামলা করা হয়েছে।

তবে বিএনপির নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, গতকাল দুপুরে হাজারখানেক নেতা-কর্মীর মিছিল পুরো রাস্তা আটকে দেয়। মিছিলটিকে রাস্তা থেকে সরিয়ে একটি লেন চালু করার চেষ্টায় পুলিশ লাঠিপেটা করলে সংঘাতের সূত্রপাত হয়।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় রাতেই পুলিশ বাদি হয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দায়ের করেছে। এতে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাসকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। এসব মামলায় বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ৬৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ হোসেন। তবে গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিদের মধ্যে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগকারী ও গাড়ির ওপর লাফাতে থাকা দুই যুবক নেই বলে জানান তিনি।

 

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৩:৫২:৪৭