'আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিএনপির নালিশ সাড়া পাবে না'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
মানুষ ভাতে-পানিতে কষ্ট পাচ্ছে এই পরিবেশ এখন বাংলাদেশে নেই। তাহলে কি বলে পাবলিককে তারা রাস্তায় নামাবেন? যারা তাদের পার্টি অফিসে বসে এক অন্যকে সন্দেহ করে, একে অন্যকে সরকারের দালাল বলে, তারা নাকি আবার জাতীয় ঐক্য গড়বে? তাদের দলেই তো কোনও ঐক্য নেই। রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুক্রবার বিকেলে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে সাংবাদিকদের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের  একথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিএনপি সালিশ-নালিশ বা অনুরোধ করে সাড়া পাবে না। কারণ বাংলাদেশ স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশ। লবিস্ট নিয়োগ করে বাংলাদেশের ওপর চাপ সৃষ্টি করার যে কূট-কৌশল বিএনপি নিয়েছে তারা বোকার স্বর্গে বাস করছে। আমরা কোনও চাপের কাছে মাথা নত করতে পারি না। জনগণের চাপ ছাড়া অন্য কোনও চাপের কাছে শেখ হাসিনা সরকার নতিস্বীকার করবে না।’

বিএনপি মহাসচিবের আমন্ত্রণ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যিনি আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি এখন ঘানায়। আজ ফিরেছেন কিনা এখনও জানি না। আমি যতটা জানি তিনি ঘানায় অবস্থান করেছেন। এখন তো আর আলোচনার সুযোগ নাই। তবে মির্জা ফখরুল ইসলামকে যদি বিশেষ বিবেচনায় ঘানায় ইনভাইট করে নিয়ে যায় সেটা ভিন্ন কথা। যিনি ইনভাইট করেছেন তিনি আলোচনায় বসেননি। তবে আলোচনায় বসেছে জাতিসংঘেরই দায়িত্বপ্রাপ্ত লোক। আলোচনা হতেই পারে এ নিয়ে আমাদের কোনও বিরূপ মন্তব্য নেই।

তিনি আরও বলেন- ‘আমাদের বক্তব্য হচ্ছে তারা জাতিসংঘে আলোচনা করতে গেছেন। এ আলোচনায় বিষয়বস্তু নিয়ে জাতিসংঘের কোনও মন্তব্য নেই, অবজারভেশন নেই, এটা আমরা জানি না। জাতিসংঘের কোনও পরামর্শ যদি থাকে দিতে পারে, তবে আমাদের সংবিধানের বাইরে গিয়ে বিকল্প কিছু করার নেই।’

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক অবস্থার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, এতো বড় ট্রেন যাত্রা করলাম নীলফামারী পর্যন্ত, একটা টু শব্দ হয়েছে কোথাও? লোক তো এক লাখও ছাড়িয়ে গেছে বেশ কয়েকটি মিটিংয়ে। দু’একটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে সেটায় আমরা অ্যাকশনে যাই। আমাদের এমপি জেলে, আমাদের মেয়র জেলে, আমাদের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী জেলে। কাজেই এখানে অন্যায় করে, পাপ করে কেউ রেহাই পাবে তা হবে না। ওয়ার্কিং কমিটির অরগানাইজিং সেক্রেটারি শোকজ হয়েছে এবং জেলা পর্যায়ের সব বাঘা বাঘা নেতারা শোকজ হয়েছে। আমাদের পার্টিতে শৃঙ্খলার জন্য সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা আছে।

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫১:৪১