যতদিন ইচ্ছা সাজা দেন...​ আদালতে খালেদা জিয়া
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট


আমার শারীরিক অবস্থা ভালো না। আমার পা ফুলে গেছে। ডাক্তার বলেছে, পা ঝুলিয়ে রাখা যাবে না। এখানে আমি আদালতে বারবার আসতে পারব না। আপনাদের যা মনে চায়, যতদিন ইচ্ছা সাজা দিয়ে দেন। আদালতে এভাবেই বললেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।  বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর নাজিমুউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে হাজির হয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় কেন্দ্রীয় কারাগারে অস্থায়ী আদালত বসানো হয়।

খালেদা জিয়া বলেন, আমার শারীরিক অবস্থা ভালো না। আমার পা ফুলে গেছে। ডাক্তার বলেছে, পা ঝুলিয়ে রাখা যাবে না। আমি আদালতে বারবার আসতে পারব না। আপনাদের যা মনে চায়, যতদিন ইচ্ছা সাজা দিয়ে দেন। মামলার শুনানির আগের দিন আদালত স্থানান্তর করে গেজেট জারি করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে খালেদা জিয়া বলেন, এই মামলায় শুনানির জন্য আজকের দিন তো আগে থেকেই ঠিক করা ছিল। কিন্তু একদিন আগে তড়িঘড়ি করে আদালত স্থানান্তর করে গেজেট দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ন্যায়বিচার বলে কিছু নাই। অবিচার হচ্ছে। কথা বলা যায় না। ইচ্ছামতো আপনারা যা খুশি সাজা দিয়ে দেন। এর আগে দুপুর ১২টা ১৪ মিনিটে খালেদা জিয়াকে কারাগারে তার কক্ষ থেকে হুইল চেয়ারে করে আদালতের এজলাসে নিয়ে যাওয়া হয়। আদালতের কার্যক্রম শেষে, তাকে আবারো হুইল চেয়ারে করে কারাগারে নিজ কক্ষে ফেরত নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিন আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা উপস্থিত না হওয়ায় আগামী ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন বিচারক। প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। এরপর থেকে তাকে পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন।


০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৯:২৮:১৯