জামিনে মুক্ত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতে থাকবে...মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
শেখ হাসিনা (ফাইল চিত্র)
জামিনে মুক্ত হওয়া শিক্ষার্থীদের ওপর নজরদারি থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার তেজগাঁওস্থ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকের অনির্ধারিত আলোচনাকালে এ কথা জানান তিনি। সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানাগেছে এ তথ্য। নাম প্রকাশে অনচ্ছিুক মন্ত্রিসভার একাধিক সিনিয়র সদস্য জানান, ঈদের আগে সব শিক্ষার্থীর আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যাক ওরা সবাই মুক্ত হয়েছে বেশ ভাল লাগছে। এখন সব শিক্ষার্থীই পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে মিলেমিশে উৎসব পালন করতে পারবে। তবে জামিনে মুক্ত হয়েই তারা আবার কোনো শৃঙ্খলাবিরোধী বা বিশৃঙ্খলার সঙ্গে সম্পৃক্ত হয় কিনা তা নিবিড়ভাবে মনিটর করবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। খবর আমাদের সময়.কম'র।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি কোটা সংস্কার আন্দোলন ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের কারণে এ পর্যন্ত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হয়েছে ৯৫ শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে ৭৩ শিক্ষার্থীকে গত দুই দিনে জামিনে মুক্তি দিয়েছে আদালত। মন্ত্রিসভার অপর এক সিনিয়র সদস্য জানান, জামিনে মুক্ত শিক্ষার্থীদের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করলেও তাদের উস্কানিদাতা ও মদতদাতাদের বিষয়ে অত্যন্ত কঠোর মনোভাব ব্যক্ত করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, অনেক শিক্ষার্থীই উস্কানি দাতাদের মনোভাব না বুঝেই আন্দোলনে যোগ দিয়েছে। অনেকে ছাত্র নয়, তার পরও বিভিন্ন টেইলার্স থেকে এবং বিভিন্ন দোকান থেকে স্কুলের ড্রেস সংগ্রহ করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মাঝে মিশে গিয়ে নাশকতা করার অপচেষ্টা করেছে। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করার চেষ্টা করেছে। সরকারবিরোধী এসব অপরাধী কোটা সংস্কার আন্দোলন ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলা আন্দোলনকে সরকারের বিপক্ষে ব্যবহার করতে চেয়েছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করে তাদের দিয়ে সন্ত্রাস সৃষ্টি করতে চেয়েছে। তাই এসব উস্কানি দাতাদের কোনোভাবেই ক্ষমা করা হবে না। এমনকি যে সব দোকান থেকে ছাত্র নয় এমন সন্ত্রাসীরা স্কুল ড্রেস সংগ্রহ করেছে তাদের বিরুদ্ধেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

২০ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৪৭:১৭