রক্তাক্ত অবস্থায় আদালত থেকে বের হলেন মাহমুদুর রহমান
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট


কুষ্টিয়া কোর্টে জামিনের সাড়ে ৪ ঘণ্টা পর আদালত প্রাঙ্গণ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় বের হলেন দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান। রোববার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তিনি আদালত চত্বর থেকে বের হন।

সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ কুষ্টিয়ার সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট শামীম উল হাসান অপু বলেন, জামিন মঞ্জুর করায় অসন্তোষ প্রকাশ করে ছাত্রলীগ নেতারা আদালত ভবনে মাহমুদুর রহমানকে অবরুদ্ধ করে রাখেন। দীর্ঘ সময় একই পরিবেশ বিরাজ করায় তিনি আদালতকে বিষয়টি জানান। পরে লিখিতভাবে পুলিশ প্রোটেকশনের জন্য তিনি আবেদন করেন। পরে মাহমুদুর রহমান আদালত এলাকা থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করলে তার ওপর হামলা চালানো হয়। ইট-পাথর নিক্ষেপ করা হয়।  এতে তিনি আহত হন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১ ডিসেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল আয়োজিত আলোচনা সভায় মাহমুদুর রহমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিকীকে নিয়ে কটূক্তিমূলক বক্তব্য দেন। সেই বক্তব্য বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত ও প্রচারিত হয়।

ইউটিউবে কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইয়াসির আরাফাত তুষার সেই বক্তব্য দেখে বাদী হয়ে গত বছরের ১০ ডিসেম্বর মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মানহানি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় রোববার মাহমুদুর রহমান আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করে স্থায়ী জামিন দেন।


২২ জুলাই, ২০১৮ ১৮:৪০:১৬