চিকিৎসার জন্য খালেদাকে লন্ডন পাঠাতে বললেন বি. চৌধুরী
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী
নির্বাচনের অন্তত ১০০ দিন আগে সংসদ ভেঙে দিতে আহ্বান জানালেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট, যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। রোববার (১০ জুন) রাজধানীর শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে রাজনৈতিক নেতাদের সম্মানে বাংলাদেশ জনদল (বিজেডি) আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এ আহ্বান জানান।তিনি বলেন, একটি অবাধ ও সুষ্ঠু জাতীয় নির্বাচন এখন জনগণের মৌলিক দাবি। এ জন্য নির্বাচনের অন্তত ১০০ দিন আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে। যাতে সংসদ সদস্য ও মন্ত্রীরা নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করতে না পারে। তার আগে তত্ত্বাবধায়ক সরকার অথবা সব দলের সর্বসম্মতিক্রমে স্বীকৃত জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

বি. চৌধুরী বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসকরা বলেছেন, তিনি (বেগম জিয়া) সাত মিনিট অজ্ঞান ছিলেন। এ কথা সঠিক হলে তার নিশ্চয়ই টিআইএ হয়েছিল। অর্থাৎ সাময়িকভাবে তার মস্তিষ্কে রক্ত চলাচল কমে গিয়েছিল। এ ধরনের রোগীর ভবিষ্যতে ব্রেন স্ট্রোক বা প্যারালাইসিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। সেহেতু এ পর্যায়ে সর্বোত্তম নিউরোলজিক্যাল সেন্টারে তার চিকিৎসা হওয়া উচিত।

তিনি বলেন, প্রয়োজন হলে সর্বোত্তম চিকিৎসার জন্য তাকে (খালেদা জিয়া) বিশ্বের শ্রেষ্ঠতম নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানো উচিত। এ হিসাবে তাকে লন্ডনের ইনস্টিটিউট অফ নিউরোলজি কুইনন্স স্কয়ার অথবা লন্ডনের হ্যামার স্মিথ হাসপাতালের (সাবেক রয়েল পোস্ট গ্র্যাজুয়েট মেডিকেল স্কুল) মতো নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসা হওয়া উচিত।

দেশের খ্যাতনামা এ চিকিৎসক বলেন, যেহেতু খালেদা জিয়া তিনবারের প্রধানমন্ত্রী এবং বিরোধী দলের নেতা ছিলেন সুতরাং অন্য বিবেচনা বাদ দিয়ে শুধুমাত্র রাজনৈতিক ও সামাজিক বিবেচনায় তার সঠিক চিকিৎসা হওয়া উচিত।

 

১১ জুন, ২০১৮ ০০:২৮:১০