'শিগগিরই খালেদা জিয়ার মুক্তি না হলে নেয়া হবে বিকল্প পথ'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বেগম জিয়াকে আইনি কৌশলে মুক্ত করা সহজ হবেনা বলে মনে করছেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা। তারা মনে করেন, সরকারের হস্তক্ষেপ না থাকলে এক সপ্তাহের মধ্যেই তাকে মুক্ত করা বিএনপির পক্ষে সম্ভব হবে। তাদের দাবি, যেহেতু এমন কোন ইঙ্গিত তারা পাচ্ছেন না, সে কারণেই বিকল্প পন্থা, রাজনৈতিকভাবেই সমাধানের পথ বের করে আনতে হবে। আইনের প্রতি আস্থা থাকলেও বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে কঠোর কর্মসূচির কথাও ভাবছে দলটির শীর্ষ নেতারা। আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বেগম জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আপিল বিভাগ গত ১৬ মে এক আদেশে বহাল রাখলেও এতে হতাশ বিএনপি। খবর সময় টিভি অনলাইন'র।

আপিল বিভাগের এ আদেশের পর সহজভাবেই কারাবন্দী বেগম জিয়ার মুক্তি সময়ের ব্যাপার হলেও, বাগড়া বাধে অন্য ৬টি মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট ও অপর দুটি মামলায় গ্রেফতার দেখানোর আদালতের নির্দেশের ঘটনা। আর এসব মামলায় আইনি প্রক্রিয়ায় তার জামিনে মুক্তি পাওয়া খুব সহজ হবেনা ইতোমধ্যে তা জেনেও গেছে বিএনপি। খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, সরকারের সদিচ্ছা না থাকলে খালেদা জিয়াকে আইনের দ্বারা বের করা সম্ভব হবে না। এ অবস্থায় দলটির শীর্ষ নেতাদের বক্তব্যে ফুটে উঠেছে সরকারের কৌশলের উপরেই নির্ভর করছে আইনি প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার মুক্তি।

মওদুদ আহমেদ বলেন, সরকার হস্তক্ষেপ না করলে আগামী সাত দিনের মধ্যে সব মামলার জামিন হয়ে যাবে। হস্তক্ষেপ করে যতদিন পারবে তারা ততদিন বিলম্ব করার চেষ্টা করবে। কিন্তু আইনেরও একটা গতি আছে। সেই জন্যেই আমরা হাইকোর্টে যাচ্ছি। নজরুল ইসলাম বলেন, সব কিছু দেখে মনে হচ্ছে সব আদালতই যেনো সরকারের ইচ্ছাপূরণের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে। সরকার চায়না খালেদা জিয়া মুক্ত হোক। তবে, খুব শিগগিরই তার মুক্তি না হলে বিকল্প পথ অর্থাৎ আন্দোলনের রাস্তা বেছে নেবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন দলটির এই দুই শীর্ষ নেতা।

নজরুল ইসলাম বলেন, প্রত্যেক কাজের একটা সময় নির্ধারণ করা থাকে। কতদিন পর্যন্ত আমরা এই প্রক্রিয়ায় আমরা আন্দোলন করতে পারবো।  আর যদি তা সম্ভব না হয় তাহলে জনগণকে নিয়ে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা ছাড়া সামনে আর কোন বিকল্প থাকে না।

মওদুদ আহমেদ বলেন, সরকার চাইবে না তিনি খুব সহজে মুক্তি পাক। তখন বিকল্প পথ আমাদের তৈরি করে রাখতে হবে। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের আন্দোলনের আরও কঠোর কর্মসূচি নিতে হবে। সব কিছু বিবেচনায় রাজনৈতিক পরিস্থতি যেন অস্থিতিশীল না হয় সেজন্য সরকারকেই উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা।

 

২০ মে, ২০১৮ ১০:৩০:৩৫